৩৭০ ধারা বিলোপকে সমর্থন করেন কাশ্মীরের প্রথম নারী রেসার

৩৭০ ধারা বিলোপকে সমর্থন করেন কাশ্মীরের প্রথম নারী রেসার

ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের প্রথম নারী রেসার তিনি। নাম হুমাইরা মুশতাক। যখন ৩৭০ ধারা বিলুপ্তি নিয়ে তুলকালাম চলছে, তখন এই সিদ্ধান্তের পক্ষেই মত দিয়েছেন তিনি। তিনি বলছেন, ‘কাশ্মীরকে এখন আর বিচ্ছিন্ন অঙ্গ হিসাবে কেউ মনে করবে না। কাশ্মীর ভারতেরই অঙ্গ। ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে। ইন্টারনেট পরিষেবা, মোবাইল নেটওয়ার্ক ফিরেছে আমাদের এখানে। আমি জম্মু-কাশ্মীরের হয়ে রেসিং ট্র্যাকে প্রতিনিধিত্ব করতে চাই।’

কার রেসিং তার জীবনের প্রথম ভালবাসা। রেসিং নিয়েই এগিয়ে যেতে চান উপত্যকার প্রথম নারী রেসার। এর পাশাপাশি হুমাইরা একজন মেডিক্যাল স্টুডেন্ট। সেইসঙ্গে পাইলট ট্রেনিং করেছেন। হুমাইরা বলেন, ‘যেভাবেই হোক আমাকে অ্যাড্রিনালিন চঞ্চল রাখতে হবে। তার জন্য আমি অনেক কিছুই করি। ছক ভেঙে অন্য কিছু করার চেষ্টা করেছি। এখন আমি পুরোপুরি রেসিং নিয়ে এগোচ্ছি। আমার এই উদ্যোগ কাশ্মীরের মানুষকে দিশা দেখালে ভালো লাগবে।’

হুমাইরাকে নিয়ে ইতিমধ্যে প্রবল আলোচনা শুরু হয়েছে কাশ্মীরে। ছোটবেলা থেকে টিভিতে রেসিং দেখে উত্সাহিত বোধ করতেন হুমাইরা। তারপর দেখতে দেখতে গাড়ির প্রেমে পড়ে যান। কোয়েম্বাটুরে জেকে টায়ার ন্যাশনাল রেসিং চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করবেন ২৩ বছরের হুমাইরা। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্যাপারে তিনি প্রচণ্ড আশাবাদী। তিনি বলেন, ‘কাশ্মীরের মানুষের ভাবনা-চিন্তায় একটা বড় পরিবর্তন প্রয়োজন। তাহলেই সব সম্ভব। আমরা কে কোথায় থাকি সেটা বড় ব্যাপার নয়। বড় হচ্ছে কে কেমনভাবে জীবন যাপন করি।’

Leave a Reply