অবশেষে  চাকরি হলো মাইক হেসনের

অবশেষে চাকরি হলো মাইক হেসনের

কথায় আছে, যোগ্যতা থাকলে চাকরি জোটানো কঠিন কিছু নয়। নিউজিল্যান্ডের কোচ মাইক হেসনের ক্ষেত্রে এই কথাটা প্রযোজ্য। বিশ্বের অন্যতম হাই প্রোফাইল এই কোচ বিভিন্ন জাতীয় দলের দায়িত্ব নেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন। তবে সেটা আর হয়ে ওঠেনি। শেষ পর্যন্ত তার চাকরি হলো আইপিএলে। এবার তিনি যোগ দিয়েছেন আইপিএলের দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুতে। তবে কোচ হিসেবে এই চাকরি জোটাতে পারেননি তিনি।

বাংলাদেশের কোচ হওয়ার দৌঁড়ে সবচেয়ে এগিয়ে ছিলেন মাইক হেসন। অপরদিকে হেসন চাচ্ছিলেন ভারতের কোচ হতে। এজন্য তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের থেকে বড় অংকের বেতন আর চাকরির শর্ত জুড়ে দেন। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড তার সাক্ষাতকার নিলেও রবি শাস্ত্রীকেই কোচ হিসেবে পুনর্বহাল করে। এদিকে বাংলাদেশও দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডমিঙ্গোকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়। দুই কুল হারানো হেসন পাকিস্তানের কোচ হওয়ার আবেদন করেননি।

জাতীয় দলের কোচ হওয়ার জন্য ‘স্বার্থ-সংঘাত নীতি’ মেনে আইপিএল দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন হেসন। এবার তার বেকারত্ব ঘুচল। শেষপর্যন্ত সেই আইপিএলেই নাম লেখালেন তিনি। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুতে বদলে গেছে তার পদবীও। এতদিন কোচ হিসেবে আইপিএলে থাকলেও আসন্ন মৌসুমে ব্যাঙ্গালুরুর ক্রিকেট অপারেশন্সের পরিচালক পদে দেখা যাবে হেসনকে। সেইসঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ব্যাটসম্যান সাইমন ক্যাটিচকে হেড কোচ হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছে দলটি।

Leave a Reply