প্রেমের ইঙ্গিত

প্রেমের ইঙ্গিত

বলিউডে সারা আলী খান ও কার্তিক আরিয়ানের প্রেম নিয়ে চর্চা চলছে, আরও চলবে। কারণ, এই চর্চা মাঝেমধ্যে উসকে দেন সারা ও কার্তিক দুজনই। এই তো গত মার্চ মাসে কার্তিকের কাঁধে সারার মাথা রাখার ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। বলিউডে রই রই রব উঠল। প্রেমে তবে ভালোমতোই মজেছেন দুজন। পরে জানা গেল, আসলে ওটা সিনেমার শুটিংয়ের ছবি। দুজনের প্রেমের গুঞ্জনকে পুঁজি করে ইমতিয়াজ আলী তৈরি করছেন ‘লাভ আজ কাল’ ছবির সিকুয়েল। সে ছবিরই প্রথম ঝলক (ফার্স্ট লুক) ছিল এটি। এর মধ্যে বেশ ঝিমিয়ে যায় দুজনের প্রেমের গুঞ্জন। ফের চর্চা শুরু হলো সারার জন্মদিনকে ঘিরে। সারা জন্মদিন পালন করেছেন ব্যাংককে। সেখানেই তাঁকে সারপ্রাইজ দিতে স্বয়ং কার্তিক উপস্থিত। তা নিয়েই এখন চর্চা বলিউডে।

‘কুলি নাম্বার ওয়ান’ ছবির রিমেকে দেখা যাবে বরুণ ধাওয়ান ও সারাকে। ছবির পরিচালক বরুণের বাবা ডেভিড ধাওয়ান। ডেভিড সারাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, জন্মদিনের পর কি কাজ শুরু করতে চান? সারার উত্তর ছিল, না। শিডিউল অনুযায়ী কাজ শুরু হোক। সেটেই জন্মদিন পালন করবেন তিনি। এত পেশাদারি মনোভাব যাঁর, তাঁকে চমকে না দিলে হয়? তাই তো প্রেমিক কার্তিক উড়ে চলে এলেন ব্যাংককে। প্রেমিকার সঙ্গে বিশেষভাবে জন্মদিন পালন করলেন। শুটিং শেষে একসঙ্গে ডিনারও করেন তাঁরা। সে ছবি আবার ইনস্টাগ্রামেও দিয়েছেন কার্তিক। ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন প্রিন্সেস ও ঈদ মোবারক।’ আর তাতে মাত পুরো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। গুঞ্জন, তবে কি দুজনই প্রেমের ইঙ্গিত দিতে চাইছেন এই ছবি দিয়ে? বলে রাখা ভালো, করণ জোহরের ‘কফি উইথ করণ’ শোতে কার্তিকের সঙ্গে সারার প্রেমের আগ্রহ থেকেই দুজনকে নিয়ে চর্চা শুরু হয় বলিউডে। এরপর আবার সেই আলোচনাকে উসকে দেন রণবীর সিং। এক অনুষ্ঠানে সারার সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে কার্তিকের পরিচয় করিয়ে দেন। সে সময় এই ঘটনা নিয়ে প্রচুর আলোচনা হয়েছিল।

তা ছাড়া একবার লুকিয়ে অবকাশ যাপনে যাওয়ার সময় বিমানবন্দরে গণমাধ্যমকর্মীদের সামনে মুখ ফসকে সারা আলী খানের নাম নিয়ে নেন কার্তিক আরিয়ান। সেটা নিয়ে কানাকানি কম হয়নি। মোটকথা ‘কফি উইথ করণ’ থেকে যেই প্রেমের গুজবের ধোঁয়া ওঠা শুরু হয়েছিল, সেটা এখন রীতিমতো আগ্নেয়গিরি হয়ে উঠেছে।

এরই মধ্যে মাত্র ২টি ছবিতে অভিনয় করেই বলিউডে নিজের ছাপ ফেলেছেন সারা আলী খান। এই অভিনেত্রী যে শুরু রূপেই নয়, গুণে ও জ্ঞানেও অনেকের চেয়ে এগিয়ে, এর প্রমাণ সারা দিয়েছেন বিভিন্ন টক শো আর সাক্ষাৎকারে তাঁর বুদ্ধিদীপ্ত জবাব আর দৃঢ় ব্যক্তিত্ব তুলে ধরার মধ্য দিয়ে। অন্যদিকে কার্তিক আরিয়ানও এখন তরুণ বলিউড অভিনেতাদের মধ্যে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে নিজেকে তুলে ধরেছেন। একটু একটু করে ছোট ছোট ছবিতে অভিনয় করে কার্তিক প্রথম সারির নায়কদের তালিকায় নাম লেখাতে যাচ্ছেন। অনেকের মতে, এরই মধ্যে লিখিয়েও ফেলেছেন। তাই কার্তিক আর সারার জুটিকে বলিউড বিশেষজ্ঞরা বলছেন একেবারে সোনায় সোহাগা। একজন রূপে-গুণে অনন্য এক রাজকুমারী, আরেকজন অনেক যুদ্ধ আর সংগ্রাম পেরিয়ে সাফল্য জয় করে নেওয়া সাহসী যোদ্ধা। তার ওপর দুজনই এখন লাখো তরুণ-তরুণীর ‘হার্টথ্রব’। তাই এই দুজনের মধ্যে যদি প্রেমটা হয়েই যায়, তাহলে বলিউডপ্রেমীদের জন্য তো বিষয়টা আনন্দেরই হয়।

তবে বলিউডের ইতিহাস বলে আরেক কথা। এ ধরনের প্রেম শুধু একটি সিনেমার প্রচারের জন্যই তৈরি হয়ে থাকে। সিনেমা মুক্তি পেলেই ভেঙে যায় সম্পর্ক, দুজনার দুটি পথ বেঁকে যায় দুই দিকে। এর আগে যেমন হয়েছিল ‘তেরি মেরি কাহিনি’ ছবির শিল্পী শহীদ কাপুর ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বেলায় কিংবা ‘কিসমত কানেকশন’ ছবির শহীদ কাপুর-বিদ্যা বালানের কথাই ধরা যাক, অথবা ‘রক অন টু’ ছবির সেটে ফারহান আখতার আর শ্রদ্ধা কাপুরের ক্ষণিকের প্রেমের গুঞ্জনের কথাই ধরা যাক। ‘লাভ আজ কাল টু’ (সম্ভাব্য নাম) ঘিরে সারা আর কার্তিকের প্রেমের গুঞ্জনও কি তবে সেই বলিউডের গতানুগতিক ধারার আরেকটি দৃষ্টান্ত হতে যাচ্ছে। এর জবাব পাওয়া যাবে ২০২০ সালে, ইমতিয়াজ আলীর প্রেমের ছবিটি মুক্তি পেলে। সূত্র: ডিএনএ।

Leave a Reply