নিশিতার কান্না ‘মুজিবের দুই কন্যা’

নিশিতার কান্না ‘মুজিবের দুই কন্যা’

এক সকালে খবর পেলেন নেই বেঁচে আর স্বজন/ দূর দেশেতে হাহাকারে কাঁদছে অনাথ দু বোন/ মন মানে না চায় ছুটে যায় তবুও যাওয়া হয় না/ কেমন ছিলেন সেদিনগুলোয় মুজিবের দুই কন্যা…’। সংগীতশিল্পী নিশিতা বড়ুয়ার ‘মুজিবের দুই কন্যা’ গানের শুরুটা এমন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আর তাঁর পরিবারের প্রয়াত সদস্যদের স্মরণে তিনি তৈরি করেছেন গানটি। আজ ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবসে নিজের ইউটিউবে চ্যানেলে গানটি প্রকাশ করেছেন নিশিতা। শোকাবহ ১৫ আগস্টকে ভিত্তি করে ‘মুজিবের দুই কন্যা’ গানটির মিউজিক ভিডিও করা হয়েছে।

‘মুজিবের দুই কন্যা’ গানটি লিখেছেন অনুপ বড়ুয়া। সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন সুমন কল্যাণ। গানের দৃশ্যায়নের শিল্পী নিশিতা বড়ুয়া নিজেই অংশ নিয়েছেন। ভিডিও চিত্রের সিনেমাটোগ্রাফি করেছেন হিমেল বড়ুয়া।

নিশিতা বড়ুয়া বলেন, ‘আমার এ পর্যন্ত গাওয়া সেরা একটি গান এটি। যে গান গাওয়ার সময়, চিত্র ধারণের সময় শুধুই কেঁদেছি। বারবার টেক নিতে হয়েছে। কোনোভাবেই কান্না থামাতে পারছিলাম না।’ তিনি আরও বলেন, ‘১৯৭৫ সালে আমার জন্ম হয়নি, তবে গানটা গাওয়ার সময় মনে হচ্ছিল ঘটনাগুলো আমার সামনে ঘটছে।’

অনুপ বড়ুয়া বলেন, ‘আসলে ৩২ নম্বর বাড়িতে বহুবার গিয়ে ফিরে এসেছি। মন বলত যদি কোনো দিন বঙ্গবন্ধুর জন্য কিছু করার সুযোগ হয়, কেবল তখনই ঢুকব এই বাড়িতে। এই বাড়ির প্রাচীর ছুঁয়ে চলে এসেছি অনেকবার। সেই আকাঙ্ক্ষা থেকে পথচলা আর চেষ্টা এবং জন্ম “মুজিবের দুই কন্যা” গানের।’

‘ক্লোজআপ ওয়ান তোমাকে খুঁজছে বাংলাদেশ ২০০৬’-এর দ্বিতীয় রানারআপ নিশিতা বড়ুয়া। ‘রংধনু ভালো লাগে, নীল আকাশ ভালো লাগে’ গানটির মাধ্যমে ক্লোজআপ ওয়ানের দ্বিতীয় আসরের প্রিয়মুখ হয়ে ওঠেন এই তরুণ শিল্পী। ২০০৭ সালে প্রকাশিত হয় তাঁর প্রথম একক অ্যালবাম ‘আমায় নিয়ে চলো’। চলচ্চিত্র ছাড়াও বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেলে কণ্ঠ দিয়েছেন। শুরু থেকেই যাঁর কণ্ঠ, তাঁর সমসাময়িক সব সংগীতশিল্পী থেকে সহজেই আলাদা করে নিতে কিংবা তাঁর গান শুনেই বুঝে নিতে সহজ হতো, এটা নিশিতার কণ্ঠ।

Leave a Reply