ফের পুরোদমে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা শুরু করেছে উত্তর কোরিয়া

ফের পুরোদমে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা শুরু করেছে উত্তর কোরিয়া

২৫ জুলাই থেকে ১০ আগস্ট। ১৫ দিনের ব্যবধানে ৫ দফায় ৯টি স্বল্পপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। মঙ্গলবার সেইসব পরীক্ষা-নিরীক্ষার বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কথা বলেছেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। ঘোষণা দিয়েছেন, নতুন স্বল্পপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র উন্নয়ন সম্পন্ন করার। ১০৩ জন সামরিক কৌশলীকে পদান্নোতি দেয়ারও ঘোষণা দেন তিনি। বলেন, নতুন উদ্ভাবন তাদের সামরিক বাহিনীকে আরো বেশি শক্তিশালী করবে।

অন্যদিকে, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র উন্নয়নে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের আন্ডার সেক্রেটারি।

যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ দপ্তর আন্ডার সেক্রেটারি আন্দ্রে থমসন বলেন, ‘ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করার জন্য উত্তর কোরিয়ার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। পিয়ংইয়ং এবং তাদের প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে নিরাপত্তা পরিষদ আরোপিত নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন এবং দেশটির বিরুদ্ধে মার্কিন চাপ অব্যাহত রাখার জন্য আমাদের অংশীজন ও মিত্রদের সঙ্গে যোাগযোগ চালু রয়েছে।’

এদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, কোরীয় পরমাণু সংকট নিয়ে পুনরায় আলোচনা শুরুর পরিকল্পনা করছেন কিম জং উন। এর আগে, ৩০শে জুন ট্রাম্প-কিম উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার অসামরিক অঞ্চল পানমুনজমে বৈঠক করেন। বৈঠকের কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আলোচনা শুরুর কথা থাকলেও এখনো দৃশ্যত কোনো অগ্রগতি হয়নি।

এদিকে, বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে একসঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতি উপেক্ষা করেই ক্ষেপণাস্ত্রের উন্নয়ন কোরে যাচ্ছেন কিম জং উন। পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ আলোচনা পুনরায় শুরুর বিষয়ে কিমের বর্তমান পদক্ষেপ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দরকষাকষির ক্ষেত্রে উত্তর কোরিয়াকে শক্তিশালী করবে বলেও মত তাদের।

Leave a Reply