দুর্গাপুজায় জিজিয়া কর চাপিয়ে বাংলার সংস্কৃতিতে আঘাত করা হচ্ছে: মমতা

দুর্গাপুজায় জিজিয়া কর চাপিয়ে বাংলার সংস্কৃতিতে আঘাত করা হচ্ছে: মমতা

দুর্গাপুজো কমিটিগুলিকে আয়কর নোটিশ পাঠানো নিয়ে এবার সম্মুখসমরে নামলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের বঙ্গ জননী সেলের ধরনার পরই প্রেস বিবৃতি দিয়ে আয়কর দফতরের তরফে জানানো হয়, কোনও দুর্গাপুজো কমিটিকে আয়কর সংক্রান্ত নোটিশ পাঠানো হয়নি। ঠিকাদার ও ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলর কর ফাঁকি রুখতেই একটু কড়াকড়ি করা হয়েছিল। কোনও দুর্গাপুজো কমিটিতে সমস্যায় ফেলা তাঁদের উদ্দেশ্য ছিল না।

এরপরই ফেসবুকে ক্ষোভে ফেটে পড়েন মমতা। তিনি লেখেন, ‘দুর্গাপুজোর ওপর ‘জিজিয়া কর’ বসাতে চাইছে কেন্দ্র। প্রেস বিবৃতিতে তথ্য বিকৃত করেছে সিবিডিটি।’ ফেসবুক পোস্টে তৃণমূল নেত্রী লেখেন, ‘এইমাত্র খবর পেলাম দুর্গাপুজো কমিটিগুলিকে নোটিশ পাঠানো নিয়ে প্রেস বিবৃতি জারি করেছে সিবিডিটি। যাকে সবাই পুজো জিজিয়া কর বলছে। সেই তথাকথিত প্রেস বিবৃতিতে বেশ কিছু দাবি তথ্যগতভাবে ভুল।’

তাঁর যুক্তি, ‘গত বছর পুজো কমিটিগুলিকে আয়কর নোটিশ পাঠানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, ঢাকি, পুরোহিত এমনকী গ্রামীণ শিল্পীদেরও নোটিশ পাঠিয়েছে আয়কর বিভাগ। টিডিএস-এর মাধ্যমে তাদের কর চোকাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। যা নিঃসন্দেহে তাঁদের ওপর একটা বড় ভার।’

মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা হচ্ছে বলে দাবি করে মমতা লেখেন, ‘ এবছর তো এখনো পুজোই হয়নি। ফলে নোটিশ পাঠানোর প্রশ্নই ওঠে না। সিবিডিটির বিবৃতিই বলছে গত বছর নোটিশ পাঠিয়েছিল তারা। তাহলে মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে কেন?’

নাম না করে বিজেপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি লেখেন, পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতি ও উৎসবের ওপর আঘাত হানার চেষ্টা হচ্ছে। উৎসবের আমেজ অটুট রাখতে অবিলম্বে কর প্রত্যাহার করা উচিত সরকারের। আমার অনুরোধ, পুজো বা অন্য কোনও অনুষ্ঠানে এরকম কোনও জিজিয়া কর নেবেন না।

Leave a Reply