বন্ধ করা হলো ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে একমাত্র বাস পরিষেবাটিও

বন্ধ করা হলো ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে একমাত্র বাস পরিষেবাটিও

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। এই প্রেক্ষিতে দেশ দুটোর মধ্যে সমঝোতা ও থর এক্সপ্রেস ট্রেন বন্ধ হয়ে যায়। এখন বন্ধ হয়ে গেল দুই দেশের মধ্যে চলাচলকারী বাস পরিষেবাও। বৃহস্পতিবার প্রথমে সমঝোতা এক্সপ্রেস বন্ধ করার কথা ঘোষণা দেয় পাকিস্তান। এরপর শুক্রবার বন্ধ করে দেওয়া হয় দুই দেশের মধ্যে চলাচলকারী থর এক্সপ্রেসও। এবার বন্ধ করা হলো ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে একমাত্র বাস পরিষেবাটিও।

সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নিয়েছে ভারত সরকার। এরপরই ভারতের সঙ্গে সব সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করার কাজে নেমেছে পাকিস্তান। তারই অংশ হিসেবে দুই দেশের মধ্যে চলাচলকারী ট্রেনের পর এবার বন্ধ করা হলো বাস পরিষেবাও।

পাকিস্তানের যোগাযোগ ও ডাক বিভাগের দায়িত্বে থাকা মন্ত্রী মুরাদ শহিদ ট্যুইট করে এই কথা জানিয়েছেন। ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিটির নির্দেশ অনুযায়ী বাস পরিষেবা বন্ধ করা হলো বলে জানিয়েছেন তিনি।

১৯৯৯ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারী থেকে সদা-ই-সরহদ নামের বাস পরিষেবা শুরু হয়। তত্‍কালীন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী নিজে প্রথম বাসে চড়ে লাহোরের বৈঠকে যোগ দিতে যান। ওয়াঘায় তাঁকে স্বাগত জানান তত্‍কালীন পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। ২০০১-এ ভারতের সংসদ হামলার পরে এই বাস পরিষেবা বন্ধ হয়ে যায়। তবে ২০০৩ সাল থেকে এটা ফের শুরু হয়।

Leave a Reply