‘কার্তিক নিজেকে উজাড় করে দেয়’

‘কার্তিক নিজেকে উজাড় করে দেয়’

লিউড তারকা চাঙ্কি পাণ্ডের মেয়ে অনন্যা পাণ্ডে প্রথম ছবি মুক্তির আগেই জানিয়েছিলেন, হৃতিক রোশন নাকি অনন্যা পাণ্ডের প্রথম ক্রাশ। অনন্যা তখন ছোট। এক জন্মদিনের পার্টিতে গিয়েছিলেন মাকে নিয়ে। আর হৃতিক রোশনকে দেখেই অনন্যা ‘হৃতিক, হৃতিক’ বলে চিৎকার শুরু করলেন। অনন্যার মা মেয়ের মুখ চেপে ধরে কোনো রকমে সেই যাত্রায় রক্ষা পান।

আরেক তরুণ তারকাকেও দারুণ পছন্দ অনন্যার। তিনি বরুণ ধাওয়ান। বরুণ ধাওয়ানের সবকিছু মুগ্ধ করে তাঁকে। অনন্যার ভাষ্য, ‘ওহ্! বরুণ। আমি তাঁকে অসম্ভব পছন্দ করি। আমি বরুণের মতোই একজনকে চাই। তিনি আসলেই প্রকৃত চিত্রনায়ক।’

আর অনন্যা পাণ্ডের সবচেয়ে প্রিয় অভিনেতার নাম শাহরুখ খান। এখানেই শেষ নয়। সময়ের সঙ্গে অনন্যা পাণ্ডের এই তালিকা মনে হচ্ছে দীর্ঘ হচ্ছে। লক্ষ্ণৌতে চলছে অনন্যা পাণ্ডে ও কার্তিক আরিয়ানের সঙ্গে ‘পতি, পত্নী ঔর ও’ ছবির শুটিং। আর কার্তিক আরিয়ানকে তিনি বলেছেন নিজেকে উজাড় করে দেওয়া অভিনেতা। এখানে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা গেছে ভূমি পেডনেকারকে। বড় পর্দায় এটি অনন্যা আর কার্তিকের জুটি বেঁধে প্রেম করা। কিন্তু এর আগে থেকেই এই জুটি নিয়ে রটেছে প্রেমের গুঞ্জন। যদিও গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের উত্তরে তাঁরা উভয়েই দুদিকে মাথা নেড়েছেন। সাফ জানিয়েছেন, প্রেম করছেন না তাঁরা।

তবে বড় পর্দায় এই ফ্রেশ জুটির অভিষেক নিয়ে উচ্ছ্বসিত ভক্তরা। পর্দায় এই জুটির রসায়ন দেখতে মুখিয়ে আছেন সবাই। সম্প্রতি ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অনন্যা পাণ্ডেসহ অভিনেতা কার্তিক আরিয়ানের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। কার্তিক আরিয়ান সম্পর্কে তাঁর অভিমত, কার্তিকের মতো নিঃস্বার্থ অভিনেতা নাকি আর হয় না। বলেছেন ‘পতি পত্নী ঔর ও’ ছবির সঙ্গে যুক্ত হওয়ার গল্পও। এই ছবির প্রযোজক জুনো চোপড়া ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার টু’ ছবির কিছু ফুটেজ দেখে অনন্যা পাণ্ডেকে পছন্দ করেন। আর অনন্যাও নাকি এ ধরনের কমেডিপ্রধান ছবি খুবই ভালোবাসেন।

কার্তিক আরিয়ানের সঙ্গে প্রথম কাজ করার অভিজ্ঞতা নিয়ে তিনি বলেন, ‘কার্তিকের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা খুব মজার। ওর মতো আন্তরিক আর নিঃস্বার্থ অভিনেতা হয় না। নিজে প্রতিটি দৃশ্য নিখুঁত করতে নিজেকে উজাড় করে দেয়। এমনকি সে আমার সংলাপগুলো সুন্দরভাবে বলতেও সাহায্য করেছে।’

তা ছাড়া ভূমি পেডনেকারের মতো মেধাবী অভিনয়শিল্পীর সঙ্গে কাজ করেও উচ্ছ্বসিত এই ‘নিউ কামার’।

Leave a Reply