মনীষা কৈরালা এবার নেটফ্লিক্সে

মনীষা কৈরালা এবার নেটফ্লিক্সে

তরুণদের ক্রেজের তালিকায় সর্বশেষ যে প্ল্যাটফর্মটি যুক্ত হয়ে হৃদয় জয় করেছে, নাম তার নেটফ্লিক্স। পরিচালক আর প্রযোজকেরাও সেই ফায়দা লুটতে ঝুঁকছেন নেটফ্লিক্সের দিকে। একের পর এক নেটফ্লিক্সের নতুন নতুন কনটেন্টের জনপ্রিয়তা ছাড়িয়ে যাচ্ছে আগেরটাকে। তাই অভিনয়শিল্পীরাও আটঘাট বেঁধে ঝাঁপিয়ে পড়ছেন নেটফ্লিক্সের কনটেন্টে। কারিশমা কাপুর, জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ, রাভিনা টেন্ডনের পর সেই তালিকার সর্বশেষ সংযোজন নেপালের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা ‘কিংডম অব নেপালে’ ভূষিত জনপ্রিয় বলিউড তারকা মনীষা কৈরালা।

গত শতকের নব্বইয়ের দশকে তিনি ছিলেন ভারতীয় তরুণদের কাছে ভিনগ্রহ থেকে আসা খোলা হাওয়ার মতো। তিনি ক্যানসারকে জয় করে ফেরা মনীষা কৈরালা। বলিউডে তাঁর জাদুকরি যাত্রা শুরু হয়েছিল ১৯৯১ সালে, ‘সওদাগর’ ছবি দিয়ে। আর সর্বশেষ দেখা গেছে রাজকুমার হিরানি পরিচালিত ‘সঞ্জু’ (২০১৮) ছবিতে, সঞ্জয় দত্তের মা নার্গিস দত্তের ভূমিকায়। এবার তাঁকে দেখা যাবে ‘লাস্ট স্টোরিজ’ (২০১৮)-এর পর নেটফ্লিক্স অরিজিনালের দ্বিতীয় ছবিতে।

এই ছবির নাম ‘মস্ক’। নীরাজ উধওয়ানি পরিচালিত এই ছবি আরও কিছু কারণে বিশেষ। এই ছবি দিয়েই স্বপ্নপূরণের যাত্রা শুরু করবেন বর্তমান প্রজন্মের তরুণদের ক্রাশ শার্লি শেঠিয়া। তিনি মূলত কিউই গায়িকা। তিনি একের পর এক বলিউডের গান গেয়ে সেই গানগুলোকে দিয়েছেন এক ভিন্ন মাত্রা। সেই সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের সদ্ব্যবহার করে নিজেকে তুমুল জনপ্রিয় করেছেন তরুণদের কাছে। আর এবার বাক্সপেটরা গুটিয়ে নিউজিল্যান্ড থেকে উড়াল দিয়ে ল্যান্ড করেছেন বলিউডে, গায়িকার পর নায়িকা হতে।

এ ছাড়া আরও দুজন তরুণ ‘মস্ক’ দিয়ে তাঁদের চলচ্চিত্রযাত্রার খাতা খুলবেন। তাঁরা হলেন প্রীত কামানি ও নিকিতা দত্ত। অর্থাৎ এই ছবির চার প্রধান চরিত্রের তিনজনই চলচ্চিত্রে একেবারে নতুন মুখ। তবে শার্লি শেঠিয়া এরই মধ্যে ‘হিরোপান্তি’ (২০১৪), ‘বাঘি’ (২০১৬), ‘মুন্না মাইকেল’ (২০১৭) ছবির পরিচালক সাব্বির খানের নতুন প্রজেক্ট ‘নিকম্মা’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

‘মস্ক’ নামের এই ছবিতে জীবন ও ভালোবাসার চমৎকার মেলবন্ধন দেখা যাবে। ছবির ভাবনাকে এক লাইনে তুলে ধরা হয়েছে এভাবে, যারা স্বপ্ন দেখতে সাহস করে, সাফল্য তাদের জড়িয়ে ধরে।

শিগগিরই শুরু হবে এই ছবির শুটিং। জীবন নিয়ে বিভ্রান্ত এক ধনী তরুণ বড় পর্দার তারকা হওয়ায় স্বপ্নে বিভোর। গ্রীষ্মের উষ্ণ এক দিনে তার দেখা হয় এক তরুণীর সঙ্গে। মেয়েটি তাকে ভ্রম আর স্বপ্নের পার্থক্য বোঝায়। আর হাতে–কলমে পরিচয় করিয়ে দেয় বাস্তবতার সঙ্গে। এমন দুই পৃথিবীর দুই তরুণ-তরুণীর প্রেম হলে কেমন হয়?

Leave a Reply