যত ভোটে জয়, সমান সংখ্যক গাছ লাগাবেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র

যত ভোটে জয়, সমান সংখ্যক গাছ লাগাবেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র

ভারতের বিভিন্ন স্থানে পানির তীব্র সঙ্কট দেখা দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গেও বৃষ্টির দেখা নেই। বৃষ্টির অপেক্ষায় চাতক পাখির মতো চেয়ে আছে বাঁকুড়াও। আর এরই মধ্যে অভিনব পন্থা অবলম্বন করলেন বাঁকুড়া জেলার বিষ্ণুপুর কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ।

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন সৌমিত্র। তাতেও বিষ্ণুপুর কেন্দ্র থেকে তার জয় আটকে থাকেনি। বিষ্ণুপুর কেন্দ্র থেকে এবার ৭৮ হাজার ৪৭ ভোটে জিতেছেন তিনি।

ভোটে জেতার পর নিজ এলাকায় সমান সংখ্যক গাছ লাগানোর প্রতিশ্রুতি দিলেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ। ঘটনাচক্রে দীর্ঘ সাত মাস পর আদালতের অনুমতিতে বাঁকুড়ায় প্রবেশ করতে পেরেছেন তিনি।

বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে একটি দলীয় সভায় যোগ দেন বিজেপির এই সাংসদ। তার পর আদিবাসী এক পরিবারে মধ্যাহ্নভোজ সারেন তিনি। তার সঙ্গে ছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়।

মধ্যাহ্নভোজ সেরে গ্রামে চারা গাছ রোপণ করেন বিষ্ণুপুরের এই সাংসদ। কোদাল হাতে মাটি খুড়ে নিজেই গাছ লাগান। বিজেপি নেতা মুকুল রায়ও গাছ লাগান।

এর পরই গাছ লাগানোর ব্যাপারে অভিনব প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। যত ভোটে জিতেছেন, সমান সংখ্যক গাছ লাগিয়ে তিনি নিজের সাংসদ এলাকার মানুষের ঋণ শোধ করতে চান বলে মন্তব্য করেন সৌমিত্র।

ছয় মাসের মধ্যে তিনি নিজের লোকসভা এলাকায় এই কাজ করবেন বলে জানান। বেশি করে গাছ লাগানো এবং পানির অপচয় বন্ধ করারও আবেদন জানান বিজেপি সাংসদ।

তিনি বলেন, বিষ্ণুপুরের ১৬ লাখ মানুষ ভালো থাকবেন, এটাই আমার অঙ্গীকার। গাছ থাকলে আমরা থাকব। গাছকে ভালোবাসলেই তা আমাকে ভালোবাসা হবে।

রাজনৈতিক মতাদর্শ নিয়ে পার্থক্য থাকতেই পারে। কিন্তু বিষ্ণুপুরের সাংসদের এই উদ্যোগকে অনুসরণ করতে পারেন ভারতের অন্য সাংসদরাও।

Leave a Reply