ডেঙ্গুতে সর্বনাশ আরও এক সংসারের

ডেঙ্গুতে সর্বনাশ আরও এক সংসারের

ডেঙ্গুতে সর্বনাশ হলো আরও একটি সংসারের। গতকাল (সোমবার) রাজধানীর ইবনে সিনা হাসপাতালে ডেঙ্গু শকড সিন্ড্রোমে আক্রান্ত হয়ে মাহমুদা আক্তার রিতা (৩২) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। তিনি জ্বর নিয়ে ১৩ অক্টোবর ভর্তি হয়েছিলে।

এ নিয়ে চলতি বছর ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২০ জনে। মৃতদের মধ্যে আটজন পুরুষ ও ১২ জন নারী।

তবে রাজধানীতে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমছে। সপ্তাহখানেক আগেও প্রতিদিন গড়ে ৮০ থেকে ৯০ জন আক্রান্ত হলেও বর্তমানে এই সংখ্যা ৫০ এর ঘরে নেমে এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫১ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ন্যাশনাল হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার ও স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ইনচার্জ ডা. আয়েশা আক্তার এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে জানান, রাজধানীসহ সারাদেশে ডেঙ্গুবাহী এডিস মশার প্রকোপ কমে এসেছে। ফলে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও কমছে।

তিনি জানান, গত ৭ অক্টোবর থেকে আক্রান্তের সংখ্যা যথাক্রমে ১০০, ১১১, ৭৯, ৮০, ৬৯, ৪৬, ৪৩, ৪৯ ও ৫১জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ সংখ্যক (৭ হাজার ৪৫০ জন) নারী, পুরুষ ও শিশু ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগে ২০০২ সালে সর্বোচ্চ ৬ হাজার ২৩২ জনের আক্রান্ত হওয়ার রেকর্ড ছিল। তবে ডেঙ্গুজনিত মৃতের সংখ্যায় এখনও ২০০০ সালের ৯৩ জনের মৃত্যুর রেকর্ডই সর্বাধিক। চলতি মৌসুমে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (সংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. সানিয়া তহমিনা ঝরা বলেন, আগের তুলনায় মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির ফলে ডেঙ্গু শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে। ডেঙ্গু মৌসুম (জুলাই থেকে অক্টোবর) প্রায় শেষ হয়ে আসায় এখন থেকে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই কমবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

Leave a Reply