জয়সুরিয়াকে ছাড়িয়ে তামিমের রেকর্ড

জয়সুরিয়াকে ছাড়িয়ে তামিমের রেকর্ড

তামিম ইকবাল দাঁড়িয়েছিলেন ৬ হাজার রানের দারুণ এক মাইলফলকের সামনে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৬৬ রান তুলতে পারলেই এই মাইলফলক স্পর্শ করা হয়ে যাবে তার। সেটা করতে পারলেনও ইনিংসের ৩৫তম ওভারে গ্রায়েম ক্রেমারকে লং অনে ঠেলে দিয়ে এক রান নিয়েই প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে ৬ হাজার রান পূরণ করলেন বাংলাদেশের ওপেনার।

কিন্তু অলক্ষ্যে আরও একটি দুর্দান্ত রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন তামিম ইকবাল। যে রেকর্ডে তিনি পেছনে ফেলেছেন শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি সনাৎ জয়সুরিয়াকে। ওয়ানডেতে নির্দিষ্ট কোনো এক ভেন্যুতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারীদের মধ্যে এতদিন শীর্ষে ছিলেন সনাৎ জয়সুরিয়া। কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে একাই জয়সুরিয়া রান সংগ্রহ করেছেন ২৫১৪টি।

এবার এই কিংবদন্তিকে ছাড়িয়ে শীর্ষে উঠে গেলেন তামিম। জয়সুরিয়াকে পেছনে ফেলতে ৩৬ রানের প্রয়োজন ছিল তামিম ইকবালের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩৬ রান করার পরই নির্দিষ্ট কোনো এক ভেন্যুতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারীরর তালিকায় সবাইকে পেছনে ফেলে শীর্ষে উঠে গেলেন তামিম। ৭৬ রানে আউট হওয়ার সময় মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তামিমের রান দাঁড়াল ২৫৫১। ৭৪ ম্যাচ খেলে এই রান করেন তামিম।

তবে জয়সুরিয়ার ২৫১৪ রান করতে প্রেমাদাসায় ম্যাচ খেলেছিলেন ৭১টি। শারজায় ২৪৬৪ রান করতে ইনজামাম ম্যাচ খেলেছিলেন ৫৯টি। তবে শুধুমাত্র তামিম ইকবাল নন, মিরপুরে রান করার ক্ষেত্রে খুব প্রিয় সাকিব আল হাসান এবং মুশফিকুর রহীমেরও। মিরপুরে ৭৬ ম্যাচ খেলে সাকিব আল হাসান রান করেছেন ২৩৬৯। নির্দিষ্ট এক ভেন্যুতে সর্বোচ্চ সংগ্রাহকের তালিকায় সাকিব রয়েছেন চার নম্বরে। এরপরের স্থানটি (৫ম) পাকিস্তানের সাঈদ আনোয়ারের। শারজায় তিনি রান করেছেন ৫১ ম্যাচে ২১৭৬। এরপরের অথ্যাৎ ৬ষ্ঠ স্থানে রয়েছেন মুশফিকুর রহীম। মিরপুরে ৮১ ম্যাচ খেলে মুশফিকের সংগ্রহ ২১৭১ রান।

Leave a Reply