কাশিমপুর কারাগারে পাকিস্তানি হাজতির মৃত্যু

কাশিমপুর কারাগারে পাকিস্তানি হাজতির মৃত্যু

গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর হাজতি পাকিস্তানি এক নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত মো. হারুন (৫২) পাকিস্তানের করাচির মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। তিনি মাদক ও স্বর্ণ চোরাচালান মামলার আসামি ছিলেন।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর সুপার প্রশান্ত কুমার বণিক জানান, শুক্রবার মধ্যরাতে হারুন বুকে প্রচণ্ড ব্যাথা অনুভব করেন। তাকে প্রথমে কারা হাসপাতালে ও পরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

হারুন বিমানবন্দর থানায় মাদক ও স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় ২০১৩ সালের ১৪ মার্চ গ্রেফতার হয়ে আদালতের মাধ্যমে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার যান। পরে তিনি ২০১৪ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশিমপুর হাইসিকিউরিট কারাগার এবং ২০১৬ সালের ৩ অক্টোবর সেখান থেকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ স্থানান্তিরিত হন।

তিনি আরও বলেন, শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে পাঠানো হবে। সেখান থেকে আইনি প্রক্রিয়া সেরে মরদেহ তার দেশে পাঠানো হবে।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাস জানান, শুক্রবার রাত পৌনে ৩টার দিকে তাকে মৃতাবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল।

Leave a Reply