আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন দীপিকা

আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন দীপিকা

অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। বর্তমানে বলিউডের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেত্রীদের একজন তিনি। হলিউড সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন এ নায়িকা।

কিন্তু এক সময় দীপিকাও মানসিক অবসাদে ভুগেছেন। আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন তিনি। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে নিজের জীবনের অবসাদের গল্প শুনিয়েছেন এ অভিনেত্রী।

দীপিকা পাড়ুকোন বলেন, ‘আমি তখন ক্যারিয়ারের শীর্ষে ছিলাম। জীবনে সব ঠিকঠাকই চলছিল। মন খারাপের কোনো বিশেষ কারণ ছিল না। কিন্তু আমার মন ভালো ছিল না। আমি ভেঙে পড়ি। তখন আমি শুধু ঘুমাতে চাইতাম। কারণ ঘুমই ছিল আমার পালানোর একমাত্র উপায়। আমি তখন আত্মহত্যার কথা ভাবতাম। আমার বাবা-মা বেঙ্গালুরুতে থাকতেন, মাঝে মাঝে আমার সঙ্গে দেখা করতে আসতেন। আমি তখন তাদের দেখাতাম যে, আমি খুব ভালো আছি।’

নিজের খারাপ লাগাগুলো আপনজনদেরও বলতে পারতেন বলে জানান দীপিকা। তার ভাষায়, ‘একদিন বাবা-মা যখন বেঙ্গালুরুতে ফিরে যাচ্ছিলেন তখন আমি কান্নায় ভেঙে পড়ি। মা আমায় জিজ্ঞেস করেন, কেন কাঁদছি? কোনো বয়ফ্রেন্ড আছে কিনা? কাজের ক্ষেত্রে কিছু ঘটেছে কিনা? আমার কাছে কোনো উত্তর ছিল না। কারণ সেরকম কোনো বিষয় ছিল না। মা সঙ্গে সঙ্গেই সিম্পটম দেখে বুঝতে পারে যে আমি অবসাদে ভুগছি। হয়তো সৃষ্টিকর্তা তখন মাকে আমার কাছে পাঠিয়েছিলেন।’

ব্যক্তিগত জীবনে একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে দীপিকার প্রেমের সম্পর্কের গুঞ্জন শোনা যায়। এর মধ্যে রণবীর কাপুরের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর এ অভিনেত্রী ভীষণ ভেঙে পড়েছিলেন বলে বলিপাড়ায় খবর চাউর হয়। বর্তমান অভিনেতা রণবীর সিংয়ের ঘরণী দীপিকা পাড়ুকোন।

বিনোদন শীর্ষ খবর