জাপানের ইইজেডে চীনের ৫ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

জাপানের ইইজেডে চীনের ৫ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

জাপানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নবু কিশি অভিযোগ করে বলেন, চীনের ছোড়া পাঁচটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র জাপানের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে (ইইজেড) আঘাত হেনেছে। বৃহস্পতিবারের এ ঘটনায় সঙ্গে সঙ্গে কূটনৈতিকভাবে প্রতিবাদও জানিয়েছে টোকিও।

নবু কিশি সাংবাদিকদের বলেন, ‘পাঁচটি চীনা ক্ষেপণাস্ত্র জাপানের ইইজেডের মধ্যে আঘাত হেনেছে, যা এবারই প্রথম ঘটনা।’

তিনি আরও বলেব, ‘আমরা কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছি।’

২০০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত বিস্তৃত জাপানের উপকূলীয় অঞ্চলের অন্তর্গত বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে (ইইজেড) এ ক্ষেপণাস্ত্রগুলো আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এ নিয়ে টোকিও প্রতিবাদ জানালেও তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি বেইজিংয়ের।

হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও গত মঙ্গলবার মার্কিন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইপের সফরের জেরে বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) তাইওয়ানের আশপাশে ব্যাপক আকারে সামরিক মহড়া শুরু করে বেইজিং। দ্বীপটির চারপাশে এমন শক্তি প্রদর্শন করাকে ‘অবৈধ ও দায়িত্বজ্ঞানহীন’ বলছে তাইওয়ান।

বুধবার পেলোসি চলে যাওয়ার পরের দিনই সেখানে মহড়া শুরু করে চীনা সামরিক বাহিনী। ব্যস্ততম আন্তর্জাতিক জলপথ এবং বিমান চলাচলের রুটে চীনের এই সামরিক মহড়াকে অবৈধ অ্যাখা দিয়েছে তাইওয়ানের ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেটিক প্রোগ্রেসিভ পার্টি।

এদিকে তাইওয়ানের দক্ষিণ, পূর্ব এবং উত্তর উপকূলীয় জলসীমার কাছে মোট ১১টি দংফেং ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে চীনের সামরিক বাহিনী। তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, মাতসু দ্বীপের কাছ থেকে এসব শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়।
খবর রয়টার্স

আন্তর্জাতিক শীর্ষ খবর