কষ্টার্জিত জয়ে শুরু নাদালের

কষ্টার্জিত জয়ে শুরু নাদালের

প্রথম দু’টি সেট জেতার পর তৃতীয় সেটে হঠাৎই ছন্দ হারান নাদাল। চতুর্থ সেটেও এক সময় নড়বড়ে লাগছিল। কিন্তু অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে জিতলেন তিনি।

সোমবারই অনামী খেলোয়াড়ের কাছে এক সেট খুইয়ে উইম্বলডন শুরু করেছিলেন নোভাক জোকোভিচ। মঙ্গলবারও উইম্বলডনের সেন্টার কোর্ট একই দৃশ্য দেখল। এ বার খেলোয়াড়ের নাম রাফায়েল নাদাল, যিনি সদ্য ফরাসি ওপেন জিতে এসেছেন। অনামী ফ্রান্সিসকো সেরুন্ডোলোর কাছে এক সেট খোয়াতে হল দ্বিতীয় বাছাই নাদালকে। গোটা ম্যাচে তাঁকে একেবারেই স্বাভাবিক ছন্দে পাওয়া যায়নি। বহু আনফোর্সড এরর করেছেন। ব্যাক হ্যান্ডে স্বচ্ছন্দ ছিলেন না। তবু ম্যাচ যে জিতলেন, তার পিছনে অবদান গ্র্যান্ড স্ল্যামে তাঁর বিপুল অভিজ্ঞতা। নাদাল ৬-৪, ৬-৩, ৩-৬, ৬-৪ হারালেন সেরুন্ডোলোকে।

তিন বছর বাদে উইম্বলডনে খেলতে নেমেছিলেন নাদাল। ম্যাচের শুরুতে প্রথম সার্ভ ধরে রেখেছিলেন নাদাল এবং সেরুন্ডোলো দু’জনেই। চতুর্থ গেমেই নাদাল ভেঙে দেন সেরুন্ডোলোর সার্ভ। আর্জেন্টিনার তরুণ খেলোয়াড় তাতে একেবারেই ভয় পাননি। পরের সেটে তিনি নাদালের সার্ভ ভাঙেন। সেট গড়াচ্ছিল সমানে-সমানে। নবম গেমে ফের নাদালকে ভাঙার মতো জায়গায় চলে এসেছিলেন সেরুন্ডোলো। কোনও মতে বেঁচে যান তিনি। দশম গেমে সেরুন্ডোলোকে ভেঙে সেট পকেটে পুরে নেন নাদাল।

দ্বিতীয় সেট জিততেও অসুবিধা হয়নি নাদালের। তবে শুরু থেকেই পাল্লা দিয়ে নিজেদের সার্ভ ধরে রাখছিলেন দুই খেলোয়াড়। ষষ্ঠ গেমে সেরুন্ডোলোর সার্ভ ভেঙে দেন ২২ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম বিজয়ী। পরের সার্ভে নাদাল এগিয়ে যেতেই সেটের ফল স্পষ্ট হয়ে যায়। তৃতীয় সেটেও নাদাল শুরু করেছিলেন আক্রমণাত্মক ভাবেই। তৃতীয় গেমেই তিনি ব্রেক করেন সেরুন্ডোলোকে। নাদালের ছন্দ দেখে প্রাক্তন খেলোয়াড় অ্যান্ডি রডিক টুইট করেন, ‘নাদালের সম্ভবত টেনিসবিশ্বে সবচেয়ে ভাল ভলি মারে। কিন্তু এটা নিয়ে বেশি কথা হয় না। ওকে ঘাসে খেলতে দেখে বেশ ভাল লাগছে।’

সেরুন্ডোলো ব্রেক করতে সময় নেননি। পরের গেমেই নাদালের সার্ভিস ভাঙেন। অষ্টম গেমে আবার। এই সময় নাদালের আনফোর্সড এররের সংখ্যা বেড়ে গিয়েছিল। কোনও কিছুই ঠিক হচ্ছিল না। নবম গেমে নিজের সার্ভিস ধরে রেখে নাদালের থেকে এক সেট কেড়ে নেন সেরুন্ডোলো।

চতুর্থ সেটেও সেরুন্ডোলোকে দেখে মনে হচ্ছিল, তিনি এই সেট জিতবেন। সেট এগনোর সঙ্গে সঙ্গে নাদালকে বর্ণহীন লাগছিল। তবে তাঁর মতো অভিজ্ঞরা তো শেষ বেলাতেই কিস্তিমাত করেন। তাই নিজের সেরাটা শেষের জন্যেই বাঁচিয়ে রেখেছিলেন নাদাল। অঘটন হতে দিলেন না। দ্বিতীয় রাউন্ডে তিনি খেলবেন রিকার্ডাস বেরাঙ্কিসের বিরুদ্ধে।

এ দিনের অন্যান্য ম্যাচে, দ্বাদশ বাছাই দিয়েগো শোয়ার্ৎজম্যান ৬-৩, ৬-২, ৬-২ হারিয়েছেন স্টেফান কোজলোভকে। সপ্তদশ বাছাই রবার্তো বাউতিস্তা আগুত ৬-১, ৬-০, ৬-৩ হারিয়েছেন আটিলা বালাজসকে। ফরাসি ওপেনের সেমিফাইনালে ওঠা হোলগার রুন বিদায় নিয়েছেন অবাছাই মার্কোস জিরোনের কাছে ৩-৬, ৫-৭, ৪-৬ হেরে। মহিলাদের বিভাগে, শীর্ষ বাছাই ইগা শিয়নটেক ৬-৩, ৬-৩ হারিয়েছেন জানা ফেটকে। চতুর্থ বাছাই পাওলা বাদোসা ৬-২, ৬-১ হারিয়েছেন লুইসা চিরিকোকে। প্রাক্তন গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী সিমোনা হালেপ ৬-৩, ৬-২ হারিয়েছেন ক্যারোলিনা মুচোভাকে।

খেলাধূলা শীর্ষ খবর