বুরকিনা ফাসোয় সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত ৫০

বুরকিনা ফাসোয় সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত ৫০

সহিংসতায় বিধ্বস্ত পশ্চিম আফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোর পূর্বাঞ্চলে সশস্ত্র হামলাকারীরা প্রায় ৫০ জনকে হত্যা করেছে।

বুরকিনা ফাসোর পূর্ব অঞ্চলের গভর্নর কর্নেল হুবার্ট ইয়ামিওগো বলেছেন, মাদজোয়ারির গ্রামীণ এলাকায় বাসিন্দাদের বিরুদ্ধে গত বুধবার এই হামলার ঘটনা ঘটে। তবে হামলার পেছনে কারা রয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট নয়।

এক বিবৃতিতে ইয়ামিওগো বলেন, নিহতরা পার্শ্ববর্তী দেশ বেনিন ও টোগো সীমান্তের কাছাকাছি পামা অঞ্চলের নিকটবর্তী একটি শহরে ভ্রমণ করছিলেন। একপর্যায়ে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের হামলায় তারা প্রাণ হারান।

২০১৫ সাল থেকে সশস্ত্র মিলিশিয়া গোষ্ঠীগুলোর ক্রমবর্ধমান হামলা মোকাবিলায় রীতিমতো সংগ্রাম করছে বুরকিনা ফাসো। সশস্ত্র এসব গোষ্ঠীগুলোর বেশিরভাগই জঙ্গিগোষ্ঠী আল কায়দা এবং আইএসের সঙ্গে সম্পৃক্ত। এছাড়া গত এক দশকে আফ্রিকার এই দেশটিতে সহিংসতা অনেক বেড়েছে এবং জোরালো হয়েছে। আর এতে প্রতি বছর হাজার হাজার বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন।

এ ছাড়া সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বুরকিনা ফাসো, নাইজার এবং মালির বিস্তৃত এলাকাজুড়ে জঙ্গিগোষ্ঠী আল কায়েদা এবং ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে সম্পর্কিত জিহাদিদের হামলা বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে পশ্চিম আফ্রিকার সাহেল অঞ্চল থেকে কয়েক মিলিয়ন সাধারণ মানুষ তাদের বাড়ি-ঘর থেকে উচ্ছেদ হয়েছেন। এসব হামলা ও সহিংসতায় নিহত হয়েছেন হাজার হাজার বেসামরিক মানুষ।

রয়টার্স বলছে, গত বুধবার হওয়া সর্বশেষ এই হামলার আগে চলতি মাসে বুরকিনা ফাসোতে আরও দু’টি হামলার ঘটনা ঘটে। এর একটিতে ১৭ জন বেসামরিক নাগরিক এবং অন্যদিতে ১১ সেনাসদস্য নিহত হন।
খবর রয়টার্স

আন্তর্জাতিক শীর্ষ খবর