পাহাড়ের পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পগুলোয় থাকবে এপিবিএন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পাহাড়ের পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পগুলোয় থাকবে এপিবিএন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের যেসব স্থানে সেনাবাহিনীর ক্যাম্প প্রত্যাহার করা হয়েছে। সেখানে এপিবিএন পুলিশ ক্যাম্প মোতায়েন করা হবে।

বুধবার (২৫ মে) রাতে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে তিন পার্বত্য জেলার বিশেষ আইনশৃঙ্খলা-সংক্রান্ত বিশেষ সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব বলেন তিনি।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সেনাবাহিনী দীর্ঘকাল ধরে কাজ করছে। তাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে এবং চুক্তির আলোকে এই পরিত্যক্ত ক্যাম্পগুলোতে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপনের এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষায় যে বাহিনী প্রয়োজন হবে সেই বাহিনী মোতায়েন করা হবে। পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষায় প্রয়োজনে র‌্যাবসহ আরও বেশি পুলিশ মোতায়েন করা হবে। তবে বৈঠকে পার্বত্য শান্তি চুক্তির ভূমি কমিশনসহ পাবর্ত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নের নানা দিক নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

এ সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা), টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, রাঙামাটি আসনের সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ বাসন্তী চাকমা, মন্ত্রী পরিষদের সচিব খন্দকার আরোয়ারুল ইসলাম, চট্টগ্রাম ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মো. সাইফুল আবেদীন, পুলিশ প্রধান বেনজির আহমেদ, বিজিবির ডিজি মেজর জেনারেল শাকিল আহমেদ, ডিজিএফআইয়ের প্রধান মেজর জেনারেল আহম্মদ তাবরেজ শামস চৌধুরী, এনআইএসআইয়ের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল টিএম জোবায়ের, পার্বত্য সচিবসহ তিন পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, তিন পার্বত্য জেলা প্রশাসক সামরিক ও বেসামরিক প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ শীর্ষ খবর