করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু নেই, শনাক্ত ৩০

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু নেই, শনাক্ত ৩০

দেশে সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি। ফলে মৃতের সংখ্যা ২৯ হাজার ১৩০ জনে অপরিবর্তিত রয়েছে। এর আগে দীর্ঘ এক মাস মৃত্যুশূন্য থাকার পর গত শনিবার (২১ মে) করোনায় দেশে একজনের মৃত্যু হয়। এরপর একদিন মৃত্যুশূন্য হওয়ার পর সোমবার (২৩ মে) দুজনের মৃত্যু হয়।

আজ বুধবার (২৫ মে) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তির তথ্যানুযায়ী, সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩০ জনের দেহে। এ নিয়ে সর্বমোট শনাক্ত ১৯ লাখ ৫৩ হাজার ৩২৮ জনে দাঁড়িয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার (২৪ মে) করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় ৩৪ জনের দেহে।

সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হন আরও ২১৫ জন। সর্বমোট সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ১ হাজার ৬০০ জন। এ ছাড়া সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৬১৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৬৫ শতাংশ।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, বুধবার (২৫ মে) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় এ ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যু বেড়েছে। এ সময় করোনায় মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৪৬৪ জনের, যা আগের দিনের চেয়ে অনেকটা বেশি।

এর আগে মঙ্গলবার (২৪ মে) মারা যান ৯৪০ জন।

এ ছাড়া বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৬ লাখ ২১ হাজার ৭৯ জন। আর মঙ্গলবার শনাক্ত হয়েছিল ৪ লাখ ৫০ হাজার ৬৯০ জন। এ সংখ্যা গতকালের চেয়ে বেশি।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বুধবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ কোটি ৮৭ লাখ ৮০ হাজার ১২০ জন। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৩ লাখ ৩ হাজার ৪২৫। আর মোট সুস্থ হয়েছেন ৪৯ কোটি ৯১ লাখ ৬৫ হাজার ৩৮৯ জন।

এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের শীর্ষ ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি ৫২ লাখ ৪১ হাজার ১৬ জন। এছাড়া মোট মৃত্যু হয়েছে ১০ লাখ ২৯ হাজার ৫২৪ জনের।

আক্রান্তে দ্বিতীয় এবং মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় ৪ কোটি ৩১ লাখ ৪১ হাজার ২০০ জন সংক্রমিত হয়েছেন। দেশটিতে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৫ লাখ ২৪ হাজার ৪৯০।

আক্রান্তে তৃতীয় ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমিত ৩ কোটি ৮ লাখ ৩৬ হাজার ৮১৫ জন এবং মোট মারা গেছেন ৬ লাখ ৬৫ হাজার ৯৫৫ জন।

আরও পড়ুন : ৩ বছর আগেই বিজ্ঞানীদের হুঁশিয়ারি ছিল মাঙ্কি ভাইরাস সম্পর্কে

তালিকার চতুর্থ অবস্থানে থাকা ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত করোনায় শনাক্ত হয়েছে ২ কোটি ৯৩ লাখ ৯১ হাজার ৩৬৫ জন। আর সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ৪৮ হাজার ৫ জন।

তালিকার পঞ্চম অবস্থানে থাকা জার্মানিতে এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ২ কোটি ৬১ লাখ ৫৭ হাজার ৮২৬ জন। অন্যদিকে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ৩৮ হাজার ৮৭৯ জন।

এছাড়া তালিকায় যুক্তরাজ্য ষষ্ঠ, রাশিয়া সপ্তম, দক্ষিণ কোরিয়া অষ্টম, ইতালি নবম ও তুরস্ক দশম অবস্থানে রয়েছে। এ তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৪৩তম।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২২৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

আন্তর্জাতিক শীর্ষ খবর