‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি প্রতিযোগিতা বন্ধ করতে হবে’

‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি প্রতিযোগিতা বন্ধ করতে হবে’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি প্রতিযোগিতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। মঙ্গলবার (১০ মে) সন্ধ্যায় ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির ২১তম সমাবর্তনে তিনি এ আহ্বান জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পর্যাপ্ত জায়গা থাকুক আর না থাকুক, ধারণ ক্ষমতার চাইতে বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি করে। ভর্তির সময় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যেন প্রতিযোগিতায় মেতে উঠে। এটা বন্ধ করতে হবে। ক্যাম্পাসগুলোতে শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা রাখতে হবে।

উন্নত বিশ্বের শিক্ষা ব্যবস্থার সঙ্গে এগিয়ে নিতে নিজেদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো হবে বলে জানান দীপু মনি।

তিনি বলেন, আমরা এক অনিশ্চিত সময় পার করছি। একদিকে বিশ্বকে গ্রাস করছে করোনা। আরেক দিকে যুদ্ধের দামামা। আমরা স্বজন হারিয়েছি, আহত হয়েছি। কিন্তু পরাজয় মানিনি, দমে যাইনি। আমরা মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ী জাতি। সেই বিজয় আমাদের এগিয়ে যেতে উদ্বুদ্ধ করে। করোনাকালীন ও পরবর্তী পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিতে অনেক উদ্যোগ নিয়েছেন।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষার্থীদের বলবো, সব বিষয় নিয়েই যেন অধ্যয়ন করানো হয়। শিক্ষার্থীদের সব বিষয়ের পাশাপাশি সাহিত্য, দর্শন, ইতিহাস, আইসিটি এসব বিষয় যেন পড়ানো হয়। শুধু সনদ দিয়ে দিলেই হবে না। শিক্ষার্থীদের উপযুক্ত করে তুলতে হবে।

কারিগরি শিক্ষার প্রতি জোর দিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কারিগরি শিক্ষার ওপর জোর দিয়েছিলেন। আমরাও জোর দিচ্ছি। আমাদের দেশে কারিগরি শিক্ষা নিয়ে ভুল ধারণা আছে। আমাদের দেশে মনে করা হয়, কম মেধাবী ও দরিদ্রের জন্যই মূলত কারিগরি শিক্ষা। কিন্তু আমাদের সে চিন্তা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। আমাদের কারিগরি শিক্ষার প্রতি জোর দিতে হবে। সব বিশ্ববিদ্যালয়ে কারিগরি শিক্ষা চালু করা উচিত। ডিপ্লোমা করার পর যদি কোনো শিক্ষার্থী চায়, তাহলে তাকে উচ্চশিক্ষায় ভর্তি হওয়ার সুযোগ করে দেওয়া উচিত।

অতিথিদের সম্মাননার দেওয়ার ক্ষেত্রে ক্রেস্ট সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে আসতে হবে মন্তব্য করে দীপু মনি বলেন, কোনো অনুষ্ঠানে গেলেই আমাদের হাতে একটা ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়। এটা নিতে নিতে আমরা ক্লান্ত। ক্রেস্ট দেওয়ার সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে আসতে হবে। ক্রেস্ট পরিবেশের জন্যও অনেক ক্ষতিকর। তার চাইতে বরং ক্রেস্টের বদলে গাছ কিংবা বই কেন নয়।

এসময় শুধু চাকরির পেছনে না ছুটে শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা হওয়ারও আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম বলেন, আমাদের দেশের শিক্ষকদের দুর্বলতা রয়েছে। বিশ্বজুড়ে যেভাবে শিক্ষার মান এগিয়ে যাচ্ছে, আমাদের শিক্ষাকে তেমনিভাবে এগিয়ে নিতে হলে শিক্ষকদের বিভিন্ন জ্ঞানের ঘাটতি দূর করতে হবে।

ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির সমাবর্তনে রাষ্ট্রপতির প্রতিনিধি হিসেবে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি উপস্থিতি ছিলেন। সমাবর্তনে আন্ডার গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামের এক হাজার ৬৯৩ জন শিক্ষার্থীকে সনদ দেওয়া হয়। এছাড়াও দুই শিক্ষার্থীকে দেওয়া হয় স্বর্ণপদক।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ইস্ট ওয়েস্ট ট্রাস্টি বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম এম শহিদুল ইসলাম।

বাংলাদেশ শীর্ষ খবর