‘সালমানের ফার্ম হাউজে তারকাদের দেহ পোঁতা আছে’

‘সালমানের ফার্ম হাউজে তারকাদের দেহ পোঁতা আছে’

ফের বিতর্কে ভাইজান। এবার এক প্রতিবেশির সঙ্গে বিবাদের জেরে আইনি ঝামেলায় জড়িয়েছেন অভিনেতা। সালমানের পানভেলের ফার্মহাউজে ‘ফিল্মস্টারদের দেহ পোঁতা রয়েছে’ এমনই চাঞ্চল্যকর দাবি করেছে কেতন কক্কর নামের ওই প্রতিবেশী। সালমানের ফার্মহাউজের একদম কাছেরই একটি জমির মালিক সে, তাঁর বিরুদ্ধে কুত্সা রটানোর অভিযোগ এনে আগেই মানহানির মামলা ঠুকেছেন সালমান।

মামলার সাম্প্রতিক শুনানিতে সালমানের আইনজীবী প্রদীপ গান্ধী ইউটিউব চ্যানেলকে দেওয়া সালমানের ওই প্রতিবেশীর সাক্ষাত্কারের বেশ কিছু অংশ পড়ে শোনান। সালমানের আইনজীবী স্পষ্ট জানান, অভিনেতার ধর্মীয় পরিচিতকে অকারণে সাক্ষাত্কারে টেনে এনেছেন কেতন, এমনকি সালমানের বিরুদ্ধে শিশু পাচারের অভিযোগ পর্যন্ত এনেছেন, বলেছেন সালমানের পানভেল ফার্ম হাউজে নাকি ফিল্ম স্টারদের দেহ পুঁতে রাখা হয়।

আইনজীবীর মারফত সালমান জানান, ‘কোনওরকম তথ্য-প্রমাণ ছাড়া আমার নামে এই সব অবমাননাকর, মানহানিমূলক আনা হয়েছে, যাতে আমার ভাবমূর্তি নষ্ট হয়। সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের মামলাতে আমার ব্যক্তিগত ইমেজ নিয়ে কেন টানাটানি হবে। কেন আমার ধর্মকে টেনে আনা হচ্ছে? আমার মা হিন্দু, বাবা মুসলমান, আমার ভাইয়েরা দুজনেই হিন্দু মেয়েকে বিয়ে করেছে। আমরা সব উত্সব সেলিব্রেট করি।

সালমানের এই মামলায় আরও দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, যাঁরা ওই সাক্ষাত্কারের অংশ ছিলেন। সালমানের দায়ের করা অভিযোগের কপিতে ফেসবুক, ইউটিউব, গুগুলের মতো প্ল্যাটফর্মগুলিকেও শামিল করা হয়েছে, কারণ সালমান চান চিরতরে ডিলিট করে দেওয়া হোক ওই সাক্ষাত্কার।

সালমানের আইনজীবীর দাবি সলমনের ফার্ম হাউজের কাছে আরও একটি জমি কিনতে চেয়েছিল কেতন কক্কর, কিন্তু যা ভেস্তে যায় কোনও কারণে। এরপর থেকেই ওর ধারণা সলমন খান কলকাঠি নেড়ে ওঁর জমি কেনা আটকেছে।

বিনোদন শীর্ষ খবর