ঢালিউড ফিল্ম মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে সম্মাননা পেলেন সাবিনা ইয়াসমিন

ঢালিউড ফিল্ম মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে সম্মাননা পেলেন সাবিনা ইয়াসমিন

ঢালিউড ফিল্ম মিউজিক অ্যাওয়ার্ড-২০২১ এ আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন কণ্ঠশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জামাইকার আমাজোরা হলে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এছাড়া এ অনুষ্ঠানে এবারের সেরা চলচ্চিত্র অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন শাকিব খান। সেরা টিভি অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন। সেরা চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম।

সমালোচক ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। পুপলার ক্যাটাগরিতে শবনম বুবলী। সেরা টিভি নাট্য অভিনেত্রী ফারিয়া শাহরীন।

সমালোচনা ক্যাটাগরিতে বাপ্পি চৌধুরীকে সেরা অভিনেতার পুরস্কার দেওয়া হয়। অভিনেতা আমান রেজাকে দেওয়া হয় বিশেষ সম্মাননা পদক।

অপরদিকে উত্তর আমেরিকার কণ্ঠশিল্পী কামরুজ্জামান বকুল, শামীম সিদ্দিকী, চন্দন চৌধুরী, তৃণা হাসান ও প্রিয়া ইসলামকে পদক দেওয়া হয়। সেরা সংবাদ উপস্থাপিকা হিসেবে পুরস্কার দেওয়া হয় তাসনুভা আনান ও সিফাত আরা তাবাসসুমকে।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আয়োজক আলমগীর খাঁন আলম ও চলচ্চিত্র পরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাস। সমাজ সেবক রাহাত মুক্তাদির সাবিনা ইয়াসমিনের হাতে সম্মাননা পদক তুলে দেন।

এসময় সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, এই আজীবন সম্মাননা আমি নিউইয়র্কের মানুষের ভালোবাসা হিসাবে গ্রহণ করলাম। এ সম্মান আমাকে অনুপ্রাণিত করবে নিষ্ঠার সঙ্গে আরও ভালো গান গাওয়ার।

এদিকে অনুষ্ঠানে সাবিনা ইয়াসমিন গান পরিবেশন করেছেন। আর বিদ্যা সিনহা মিম একটি নাচে পারফর্ম করেছেন।

গত ১৯ বছর ধরে অনুষ্ঠানটি নিয়মিত আয়োজন করে আসছে শো টাইম মিউজিক। ভারতীয় অভিনেত্রী নার্গিস ফাখরি অনুষ্ঠানে আসার কথা থাকলেও আসেননি। বাংলাদেশ থেকে অনেক তারকা এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করলেও তাদের পরিবেশনা না থাকায় দর্শকরা হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানের আয়োজক আলমগীর খাঁন আলম বলেন, আমাদের আরও পাঁচজন শিল্পীকে দুবাই এয়ারপোর্ট থেকে ফেরত পাঠানো হয়েছে করোনার কারণে। এর মধ্যে ছিলেন নার্গিস ফাকরিও। দুবাই এয়ারপোর্টে করোনা টেস্টে তার পজেটিভ এসেছে। এছাড়া করোনার নিষেধাজ্ঞার কারণে কয়েকজন আসতে পারেননি।

জুরি বোর্ড সম্পর্কে আলম বলেন, শো টাইম মিউজিকের নিজস্ব জুরিবোর্ড আছে। নীতিগত কারণে আমরা তাদের নাম প্রকাশ করিনি।

লস অ্যাঞ্জেলস থেকে অনুষ্ঠানে আসা আজম আলী বলেন, এক অনুষ্ঠানে অনেক বাঙালি দেখে ভালো লাগছে। দেশের শিল্পীদের খুব কাছ থেকে দেখার সুযোগ পেলাম। যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন এলাকায় থাকা বাঙালিদের সঙ্গে দেখা হওয়ার একটা সুযোগ এটি।

সেরা অভিনেতার পুরস্কার হাতে নিয়ে শাকিব খান বলেন, ঢালিউড অ্যাওয়ার্ড গত ১৯ বছর ধরে চলছে। এটি চলচ্চিত্র প্রেমী সবার জন্য এক আশার আলো।

বিনোদন শীর্ষ খবর