২৩ ডিসেম্বরের ভোট হবে ২৬ ডিসেম্বর

২৩ ডিসেম্বরের ভোট হবে ২৬ ডিসেম্বর

চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোটের তারিখ পিছিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামী ২৩ ডিসেম্বরের সব নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৬ ডিসেম্বর।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) ইসির উপসচিব মো. আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এই সংক্রান্ত নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক, সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার/ জেলা নির্বাচন অফিসার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসার ও সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারের কাছে পাঠানো হয়।

এই সংক্রান্ত নির্দেশনায় জানানো হয়, ইউপি’র সাধারণ নির্বাচন, বিভিন্ন ইউপি’র শূন্য পদে উপনির্বাচন ও বিভিন্ন উপজেলা পরিষদের শূন্য পদের ভোটগ্রহণের তারিখ ২৩ ডিসেম্বরের পরিবর্তে ২৬ ডিসেম্বর পুনঃনির্ধারণ করার জন্য কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছে।

নির্দেশনায় আরো জানানো হয়, এসব নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিল, বাছাই, বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল, আপিল গ্রহণ, আপিল নিষ্পত্তি, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ও প্রতীক বরাদ্দের তারিখ অপরিবর্তিত থাকবে।

জানা যায়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুরোধে গত ২২ নভেম্বর এসব তারিখ পিছিয়ে ভোটের নতুন তারিখ নির্ধারণ করেছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

এর আগে বুধবার (১০ নভেম্বর) চতুর্থ ধাপে ৮৪০ ইউপির ভোটের তফসিল ঘোষণা করে কমিশন। এই ধাপে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৫ নভেম্বর। বাছাই ২৯ নভেম্বর। আপিল ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর। আপিল নিষ্পত্তি ৩ ডিসেম্বর থেকে ৫ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৬ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ৭ ডিসেম্বর। এই ধাপে ৩৩টি ইউপিতে ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হবে।

ইতিমধ্যে তিন ধাপের ইউপি ভোট সম্পন্ন হয়েছে। চতুর্থ ধাপে ৮৪০ ইউপিতে ২৬ ডিসেম্বর ও পঞ্চম ধাপে ৫ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ষষ্ঠ ধাপের তফসিল ঘোষণার অপেক্ষায় রয়েছে।

বাংলাদেশ শীর্ষ খবর