মাইলস ছাড়লেন শাফিন আহমেদ

মাইলস ছাড়লেন শাফিন আহমেদ

এর আগেও একাধিকবার নিজের গড়া ব্যান্ড মাইলস ছেড়েছেন শাফিন আহমেদ। ফের দল ছাড়ার ঘোষণা দিলেন এ শিল্পী। শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাতে ফেসবুক লাইভে এসে এ ঘোষণা দেন শাফিন আহমেদ।

বক্তব্যের শুরুতে শাফিন আহমেদ বলেন, ‘মাইলসের সঙ্গে আমার পথচলা সেই ১৯৭৯ সাল থেকে। বহু বছর পার হয়ে গেছে। অনেক বছর সময় দিয়েছি, শ্রম দিয়েছি। অনেক ক্রিয়েটিভ কাজ হয়েছে। মাইলসের যে অবস্থান আজকে, সেটির পেছনে আমার কতটুকু অবদান, সেটি আপনাদের অনেকেই জানেন। তবে একটা সিদ্ধান্ত নিতে আমি বাধ্য হয়েছি সম্প্রতি। সেটা হচ্ছে, এ বছরের শুরু থেকে-মাইলসের বর্তমান লাইন আপের সাথে আমার পক্ষে মিউজিকের কোনো কার্যক্রম করা সম্ভব হচ্ছে না। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমি এই লাইন আপের সাথে মিউজিক করা থেকে বিরত থাকব।’

দল ছাড়লেও গান ছাড়ছেন না শাফিন আহমেদ। তা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সংগীত জগতের কার্যক্রম আগের মতোই স্বাভাবিক থাকবে। নিয়মিত স্টেজ ও রেকর্ডিংয়েও আমাকে পাওয়া যাবে। আমার একটাই প্রত্যাশা মাইলস নামটির যেন কোনোরকম অপব্যবহার না হয়। মাইলসকে নিয়ে আমরা ৪০ বছর উদযাপন করেছি—খুব গৌরবোজ্জ্বলভাবে। আমরা যদি একসাথে কাজ না করতে পারি, তাহলে মাইলসের কার্যক্রম এখনই স্থগিত করা উচিত এবং এটাই সেরা সিদ্ধান্ত বলে মনে করি।’

দল ছাড়ার একটি কারণ উল্লেখ করে ভিডিওটির ক্যাপশনে শাফিন আহমেদ লিখেন—‘দীর্ঘদিনের অন্যায় ও ভুল কার্যক্রমের পরিপ্রেক্ষিতে আমি এ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি।’ তবে তার সঙ্গে কী অন্যায় করা হয়েছে তা জানাননি।

২০১০ সালে মাইলস ছেড়ে নতুন দল গঠন করেন শাফিন আহমেদ। কয়েক মাস পর ফিরে আসেন দলে। ২০১৭ সালের শুরুর দিকেও ব্যান্ড থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। কিন্তু কিছুদিন পর সব দ্বন্দ্ব ভুলে আবারও নিজ ঘরে ফেরেন শাফিন।

১৯৭৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় মাইলস। ১৯৯১ সালে দলটির প্রথম বাংলা গানের অ্যালবাম ‘প্রতিশ্রুতি’ প্রকাশিত হয়। এর পর তাদের পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। মাইলসের অ্যালবামগুলো হলো—মাইলস (১৯৮২), প্রতিশ্রুতি (১৯৯১), প্রত্যাশা (১৯৯৩), প্রত্যয় (১৯৯৬), প্রয়াস, প্রবাহ (২০০০), প্রতিধ্বনি (২০০৬) ও প্রতিচ্ছবি (২০১৫)।

মাইলসের সর্বশেষ লাইনআপে ছিলেন—শাফিন আহমেদ (বেজ গিটার, কণ্ঠ), হামিন আহমেদ (গিটার, কণ্ঠ), মানাম আহমেদ (কি-বোর্ড), ইকবাল আসিফ জুয়েল (গিটার) ও সৈয়দ জিয়াউর রহমান তূর্য (ড্রামস)।

বিনোদন শীর্ষ খবর