পেরিসিচের গোলে আশা টিকে রইলো ক্রোয়েশিয়ার

পেরিসিচের গোলে আশা টিকে রইলো ক্রোয়েশিয়ার

দ্বিতীয় ম্যাচেও নিজেদের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি ক্রোয়েশিয়া। শুরু থেকেই চেক রিপাবলিকের বিরুদ্ধে তেমন একটা আক্রমণ চালাতে পারেনি দলটি। প্রথমেই দেজান লভরেন ফাউল করেন চেক রিপাবলিক ফুটবলারকে। পেনাল্টি থেকে গোল করেন শিক।

তবে ইভান পেরিসিচের গোলে সমতা ফিরে। আর এই সমতায় চেক রিপাবলিকের বিপক্ষে ১ পয়েন্ট তুলে নিয়ে ইউরোর শেষ ষোলোর আশা বাঁচিয়ে রাখলো গত বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা।

গ্লাসগোর হ্যাম্পডেন পার্কে শুক্রবার ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্রয়ে শেষ হয়। ৩৭তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে পাত্রিক শিকের গোলে চেক রিপাবলিক এগিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সমতা টানেন পেরিসিচ।

চেকদের এগিয়ে যাওয়ার গোলটি নিয়ে অবশ্য বিতর্ক আছে। হাঁটুর ইনজুরিতে ইংল্যান্ড ম্যাচ মিস করা ক্রোয়েশিয়ার লভরেন কর্নার কিক থেকে পাওয়া বল দখল করতে গিয়ে নিজের কনুই দিয়ে শিকের নাকে আঘাত করেছিলেন। এরপর রেফারি ভিএআর দেখে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন। তবে লভরেন ইচ্ছে করে শিকের নাকে আঘাত করছিলেন কি না তা রিপ্লে দেখেও নিশ্চিত হওয়ার উপায় ছিল না।

গোল হজমের পর শোধ করার সহজ সুযোগ পেয়েছিল ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু ১০ গজ দূরে থেকেও শট নিয়ে বল পোস্টের উপর দিয়ে মারেন আন্তে রেবিচ। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সমতা টানেন পেরিসিচ। আন্দ্রে ক্রামারিচের ফ্রি-কিকে বল লেফট উইঙ্গে থাকা পেরিসিচের পথে পড়লে তা দখলে নিয়ে বক্সে ঢুকে দারুণ শটে জালে জড়ান ইন্টার মিলানের উইঙ্গার। এই গোলের মাধ্যমে প্রথম ক্রোয়াট ফুটবলার হিসেবে চারটি ভিন্ন ভিন্ন আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে গোল করার কীর্তি গড়লেন পেরিসিচ- ২০১৪ ও ২০১৮ বিশ্বকাপ এবং ২০১৬ ও সর্বশেষ ২০২০ ইউরো।

বাকি সময়ে কোনো দলই আর জালের খোঁজ না পেলে ড্রয়ে শেষ হয় ম্যাচ। ২০০৬ বিশ্বকাপের পর এই প্রথম বড় কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই জয়শূন্য রইলো ক্রোয়েশিয়া। অন্যদিকে দুই দলের মধ্যে চতুর্থবারের দেখায়ও জয়ের দেখা না পাওয়া চেক রিপাবলিক এবারের ড্র নিয়ে খুশিই হওয়ার কথা। কারণ এই ফল তাদের গ্রুপের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ তুলে দেওয়ার পাশাপাশি শেষ ষোলোর আশাও উজ্জ্বল করেছে।

খেলাধূলা শীর্ষ খবর