১৭ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খোলার সিদ্ধান্ত স্থগিত

১৭ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খোলার সিদ্ধান্ত স্থগিত

মহামারি করোনার বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ১৭ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খোলার সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। সব শিক্ষার্থীদের ভ্যাক্সিন দেওয়ার কাজ সম্পূর্ণ হওয়ার পর আবাসিক হল খোলার কথা বলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ই এপ্রিল) প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘বর্তমান মহামারি পরিস্থিতি বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হল খোলা নিয়ে আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। শিক্ষার্থীদের ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর দেশের সার্বিক করোনা মহামারি অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে আবাসিক হল খোলার তারিখ নির্ধারণ করা হবে।’

কবে নাগাদ ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম সম্পন্ন হতে পারে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় আমাদেরকে জানালে আমরা বলতে পারবো।’

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২০ মার্চ থেকে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় বন্ধ রয়েছে ঢাবির আবাসিক হল। এ বছরের গত ২২ ফেব্রুয়ারি শিক্ষার্থীরা হল খোলার দাবিতে আন্দোলন করলে ওইদিন বিকালে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ থাকা দেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শ্রেণিকক্ষে সরাসরি ক্লাস শুরু হবে ২৪ মে থেকে। তার এক সপ্তাহ আগে ১৭ মে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে। ২৪ মের আগে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় কোনও পরীক্ষা হবে না।’ পরের দিন ২৩ ফেব্রুয়ারি ঢাবি শিক্ষা পরিষদের (একাডেমিক কাউন্সিল) সভায় সরকারের এই সিদ্ধান্ত অনুমোদন করে।

বাংলাদেশ শীর্ষ খবর