উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া সিএমপি সদস্যের করোনা পজিটিভ

উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া সিএমপি সদস্যের করোনা পজিটিভ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে শ্বাসকষ্ট নিয়ে মারা গেছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বন্দর বিভাগের কনস্টেবল নঈমুল হক (৩৮)। গতকাল শুক্রবার সকালে তিনি চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। রাতেই করোনাকালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকার পর চট্টগ্রামে কনস্টেবল নঈমুল হকের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ পুলিশের আটজন সদস্য এই পর্যন্ত করোনার শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

মৃত্যুর পর তাঁর নমুনা সংগ্রহ হয়েছিল। শনিবার রাতে রিপোর্টে নঈমুলের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ পাওয়া যায়। এর মধ্য দিয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়, নঈমুল করোনাআক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (জনসংযোগ) আবু বকর সিদ্দিক। কালের কণ্ঠকে তিনি বলেন, শুক্রবার চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া কনস্টেবল নঈমুলের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল শনিবার রাতে পাওয়া গেছে। তার শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, ৩৮ বছর বয়স্ক নঈমুল শ্বাসকষ্ট নিয়ে বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। পরদিন শুক্রবার সাড়ে ১১টায় তিনি মারা যান। পরে শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় দামপাড়াস্থ পুলিশ লাইন্সে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। শেষে মরদেহ দাফনের জন্য কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার থানায় পৌঁছে দেওয়া হয়।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ সদস্যদের মধ্যে নঈমুল প্রথম করোনার শিকার হলেন। তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান। তিনি বলেন, কনস্টেবল নঈমুল হকের মহান আত্মত্যাগ চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশসহ বাংলাদেশের পুলিশের প্রতিটি সদস্যকে আরো শক্তিশালী করবে এবং করোনাযুদ্ধে সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা জোগাবে।

বাংলাদেশ শীর্ষ খবর