স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষায় ‘জীবাণুমুক্তকরণ’ চেম্বার তৈরি বুয়েটের ১১ সাবেক শিক্ষার্থীর

স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষায় ‘জীবাণুমুক্তকরণ’ চেম্বার তৈরি বুয়েটের ১১ সাবেক শিক্ষার্থীর

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা দিতে জীবাণুমুক্তকরণ চেম্বার তৈরি করেছেন বুয়েটের সাবেক ১১ শিক্ষার্থী। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে এই চেম্বারের ব্যবহার শুরু হয়েছে।

আজ বুধবার (১৩ মে) কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালের পরিচালক ডা. সারোয়ারের কাছে এই চেম্বার হস্তান্তর করেন সাবেক বুয়েট শিক্ষার্থীরা।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক এ বি এম তৌফিক হাসান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত গবেষণালব্ধ উপাত্তের ভিত্তিতে, দেশীয়ভাবে তৈরি করা জীবাণুমুক্তকরণ এই চেম্বার তৈরি করা হয়েছে। জীবাণুমুক্তকরণ চেম্বার তৈরির এই ‘সেইফ টু ডফ’ দলের সদস্যরা সবাই বুয়েটের ‘যাযাবর ৯৭’ ব্যাচের শিক্ষার্থী। বেশিরভাগ স্বাস্থ্যকর্মীই পিপিই ছাড়াতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে পড়তে পারেন।

এই ভাবনা থেকে কভিড-১৯ দুর্যোগের শুরু থেকেই দলটি ডাক্তারদের নিরাপত্তা নিয়ে কাজ শুরু করেন। প্রাথমিকভাবে তৈরিকৃত এই চেম্বারটি কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে হস্তান্তর করা হয়েছে। তৈরিকৃত দ্বিতীয় চেম্বারটি আগামী সপ্তাহে কুর্মিটোলা হাসপাতালে হস্তান্তর করা হবে।

আরো জানানো হয়, ‘চেম্বারটিতে সহজলভ্য দেশীয় প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। সম্পূর্ণ অটো সেন্সর বেসড সিস্টেম দিয়ে পরিচালিত চেম্বার কোনো স্পর্শ ছাড়াই কাজ করবে। এই সেন্সর-বেসড অটোমেটিক চেম্বার ব্যবহারে ডাক্তার/স্বাস্থ্যকর্মীদের সংক্রমিত হওয়ার কোনো ঝুঁকি নেই। শুধুমাত্র ফুল সেট পিপিই (গাউন, এন-৯৫ মাস্ক, গগলস, গ্ল্যাভস) পরিধানরত অবস্থায় এই চেম্বার ব্যবহার করা যাবে বলে জানিয়েছেন নির্মাতা প্রকৌশলীরা।

এই বিষয়ে ডেভেলপমেন্ট টিমের সদস্য সামিউন নবী বলেন, ডাক্তারদের সঙ্গে যোগাযোগকালে আমরা জানতে পারি যে, অনেক স্বাস্থ্যকর্মীই দ্রুত পিপিই ছাড়তে গিয়ে জীবাণু আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে পড়েন। ঝুঁকি কমাতে পিপিই খোলার আগে প্রাথমিকভাবে এটা জীবাণুমুক্ত করতে একটা সিস্টেম ডেভেলপ করতে পারলে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা বেশ কিছুটা ইম্প্রুভ করতে পারে। এই প্রয়োজন মেটানোর জন্যই চেম্বারটি তৈরি করা হয়েছে।

টিমের সদস্য বুয়েটের যন্ত্র কৌশল বিভাগের অধ্যাপক এ বি এম তৌফিক হাসান বলেন, বুয়েটের মেকানিক্যাল ল্যাবে পাম্প ব্যবহার করে ডিসইনফেক্টেন্ট এর মিশ্রণে ধোঁয়া তৈরি করে চেম্বারের কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হয়েছে. এই সেন্সর-বেসড অটোমেটিক চেম্বার ব্যবহারে ডাক্তার/স্বাস্থ্যকর্মীদের সংক্রমিত হওয়ার কোনো ঝুঁকি নেই।’

বাংলাদেশ