শত শত বিদেশফেরত পাকিস্তানি করোনা পজিটিভ

শত শত বিদেশফেরত পাকিস্তানি করোনা পজিটিভ

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় নাজেহাল অবস্থা পাকিস্তানের। দেশজুড়ে হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুসংখ্যাও। এমন পরিস্থিতিতেও দরিদ্র মানুষের জীবন-জীবিকা রক্ষায় লকডাউন তুলে নিতে বাধ্য হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ‘মরার উপর খাঁড়ার ঘা’ হিসাবে এসেছে মধ্যপ্রাচ্য থেকে দেশে ফেরা প্রবাসীরা। এদের মধ্যে শত শত বিদেশফেরত করোনা পজিটিভ।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পাকিস্তান প্রায় ২০ হাজার নাগরিককে দেশে ফিরিয়ে এনেছে। তাদের মধ্যে প্রচুর সংখ্যক অদক্ষ শ্রমিক রয়েছেন যারা উপসাগরীয় দেশগুলোতে করোনার লকডাউনের কারণে চাকরি হারিয়েছেন।

সিন্ধু প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলী শাহ শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, মধ্যপ্রাচ্য থেকে সিন্ধুতে ফিরে আসা ২ হাজার ৬৯ জন পাকিস্তানির মধ্যে ৫০০ জনেরও বেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত।

এদিকে উত্তর-পশ্চিমের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের একজন প্রবীণ সরকারী কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পেশোয়ার শহরে প্রত্যাবাসন করা ১ হাজার ৬০০ প্রবাসীর মধ্যে ২০০ জনেরও বেশি করোনা পজিটিভ।

এরই মধ্যে ফিরে আসা ২০ হাজার জন ছাড়াও বিদেশে আরও প্রায় এক লাখ ১০ হাজার পাকিস্তানি স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের জন্য নিবন্ধন করেছেন। এই বিপুল সংখ্যক নাগরিক ফিরে আসলে পাকিস্তানের করোনা পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হবে এতে কোন সন্দেহ নেই। পাক পররাষ্ট্র দফতরের খবর অনুযায়ী মধ্যপ্রাচ্যে প্রায় ৪৫ লাখ পাকিস্তানি কাজ করে।

পাকিস্তান আটকে পড়া নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য বিশেষ বিমান চালু করেছে। দেশটিতে আপাতত বাণিজ্যিক বিমান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

ইমরান খানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মুইদ ইউসুফ জানান, বিভিন্ন দেশ থেকে ২০ হাজার পাকিস্তানি দেশে ফিরেছে। আগামী সপ্তাহেও ৩২টি দেশ থেকে আরো ৪০ হাজার কর্মহীন পাকিস্তানি ফিরে আসবে।

সূত্র- দ্য ন্যাশনাল।

আন্তর্জাতিক