চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কান নাগরিক করোনায় আক্রান্ত

চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কান নাগরিক করোনায় আক্রান্ত

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো একজন বিদেশি করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি একজন শ্রীলঙ্কান নাগরিক। চট্টগ্রামের কর্ণফুলী ইপিজেডের শ্রীলঙ্কান মালিকানাধীন একটি তৈরি পোশাক কারখানায় তিনি কর্মরত আছেন।

আজ বুধবার চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় যে ২২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তারমধ্যে এই শ্রীলঙ্কানও আছেন।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানান, সিভাসুর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় চট্টগ্রামের ১৪ জন, নোয়াখালী জেলার দুই জন, ফেনী জেলার একজন, রাঙামাটি জেলার চার জন এবং লক্ষ্মীপুর জেলার একজনের মধ্যে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। চট্টগ্রামে আক্রান্তদের মধ্যে কর্ণফুলী ইপিজেডের একটি পোশাক কারখানায় কর্মরত শ্রীলঙ্কার একজন নাগরিক আছেন। তার বয়স ৪৬ বছর। তিনি নগরীর দক্ষিণ খুলশী এলাকায় বসবাস করেন।

সিভিল সার্জন জানান, দক্ষিণ খুলশীতে অবস্থিত সেই বিদেশির বাড়ি লকডাউন করা হচ্ছে। কিন্তু তার কর্মস্থল কর্ণফুলী ইপিজেডের কারখানাটি লকডাউন করা হবে না। কারণ তিনি আগে থেকেই বাসায় কোয়ারেনটিনে আছেন।

শ্রীলঙ্কান নাগরিক কিভাবে করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন তা নিশ্চিত করা যায়নি। কারণ ২৬ মার্চ লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে তিনি তেমন একটা কর্মস্থলে যাননি।

বাংলাদেশ