ইরানে বিক্ষোভে অংশ নেয়ায় ছাত্রকে ৭৪ দোররা, ৬ বছর জেল

বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার দায়ে এক ইরানি ছাত্রকে ছয় বছরের কারাদণ্ড এবং ৭৪টি দোররা মারার শাস্তি দেওয়া হয়েছে। জেনারেল কাশেম সোলেমানি নিহত হওয়ার পর ইসলামী রেভোলিউশনারি গার্ড (আইআরজিসি) সেনাদের গুলিতে ইউক্রেনীয় যাত্রীবাহী বিমান ভূপাতিতের ঘটনায় জানুয়ারিতে ওই বিক্ষোভ হয়।

বেশ কয়েকদিন অস্বীকার করে পরে আইআরজিসি ভুলক্রমে বিমানটিতে গুলি চালানো হয়েছে বলে দায় স্বীকার করে। ওই ঘটনায় বিমানের ১৭৬ আরোহীর সকলেই নিহত হয়।

শুক্রবার তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী মোস্তফা হাশেমিজাদেহ টুইট করেছেন যে, ‘জাতীয় নিরাপত্তার বিরুদ্ধে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে ছয় বছরের কারাদণ্ড এবং জনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত করার জন্য ৭৪টি দোররা মারার শাস্তি দেওয়া হয়েছে।’

একই বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষার্থী আমির মোহাম্মদ শরীফী কয়েকদিন আগে বলেছিলেন যে, জানুয়ারির প্রতিবাদে অংশ নেওয়ার জন্য তাকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বিমান ভূপাতিতের ঘটনায় তেহরানের শিক্ষার্থীরা তাদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বাইরে জড়ো হয় এবং আইআরজিসির বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে।

গত সপ্তাহে, উত্তরের শহর আমোলের পাঁচ জনকে জানুয়ারিতে আইআরজিসির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার জন্য মোট ৩০ মাসের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছিল।

সূত্র- আল আরাবিয়া।

আন্তর্জাতিক