বাংলাদেশে আটকেপড়া পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাদের ফেরানোর আগ্রহ নেই মমতার!

বাংলাদেশে আটকেপড়া পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাদের ফেরানোর আগ্রহ নেই মমতার!

নভেল করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) মহামারীর পটভূমিতে আরোপিত বিধিনিষেধের কারণে কয়েক হাজার ভারতীয় নাগরিক বাংলাদেশে আটকে পড়েছে। এ সংখ্যা প্রায় তিন হাজার হতে পারে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আটকে পড়া ভারতীয়দের ৮০ ভাগেরও বেশি পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাংলাদেশে আটকে পড়া ভারতের পশ্চিমবঙ্গের এক বাসিন্দা সোমবার কালের কণ্ঠকে বলেন, ভারত থেকে বাংলাদেশিরা ফিরছে-এমন খবর আমরা পাচ্ছি। কিন্তু আমরা ফিরতে পারছি না। পশ্চিমবঙ্গের  মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় টুইট বার্তায় বলেছেন, ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়া পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাদের ফেরাতে তিনি সব ধরনের সব চেষ্টা করছেন। কিন্তু বাংলাদেশে যে তাঁর  রাজ্যের এত লোক আটকা পড়ে আছে সে ব্যাপারে তাঁর কোনো আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। 

পশ্চিমবঙ্গের ওই বাসিন্দা আরো জানান, তাদের কাছে যে টাকা-পয়সা ছিল তা শেষ হয়ে যাচ্ছে। অনেকেরই এখন কোনো কাজ নেই। তাই যত দ্রুত সম্ভব তাদের নিজ বাড়িতে ফিরে যাওয়া প্রয়োজন।

জানা গেছে, আটকে পড়া ভারতীয়দের যাদের সহযোগিতা প্রয়োজন তাদের বাংলাদেশে ভারতীয় হাইকমিশন থেকে সহযোগিতা করা হচ্ছে। কিন্তু এই সংকটময় সময়ে সবাই নিজ নিজ বাড়িতে ফিরতে চায়। এ ক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের উদ্যোগ প্রয়োজন। পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এ বিষয়ে এখনও কার্যকর কোনো উদ্যোগ নিচ্ছেন না। আর এ নিয়েই আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশে আটকে পড়া পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাদের অনেকে। 

বাংলাদেশ