ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট ভ্যাকসিন তৈরির জন্য পুরস্কারের ঘোষণা দিলেন

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট ভ্যাকসিন তৈরির জন্য পুরস্কারের ঘোষণা দিলেন

চীনের উহানে প্রথম ছড়িয়ে পড়লেও করোনা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। এই ভাইরাস ঠেকানোর কোনো ওষুধ বা ভ্যাকসিন এখনো উদ্ভাবন হয়নি। এই মারণ ভাইরাস হানা দিয়েছে ফিলিপাইনে। তাই করোনা ঠেকাতে ভ্যাকসিন তৈরির জন্য পুরস্কারের ঘোষণা দিলেন ফিলিপাইনে প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে। 

আজ মঙ্গলবার ফিলিপাইনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়, করোনার ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের জন্য প্রায় দুই লাখ মার্কিন ডলারের পুরস্কার ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে। দেশটির যে নাগরিকই করোনার ভ্যাকসিন উদ্ভাবন করবেন; তাকেই দেওয়া হবে এই পরিমাণ অর্থ। 

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র হ্যারি রোক এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন, কভিড-১৯ শুধুমাত্র ফিলিপাইনের মনুষেরই শুত্রু নয়; গোটা বিশ্বের শুত্রু। তাই এই রোগ মোকাবেলায় করোনার ভ্যাকসিন তৈরির জন্য ১০ মিলিয়ন (প্রায় দুই লাখ মার্কিন ডলার) পেসোর (ফিলিপাইনের মুদ্রা) পুরস্কার ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট। যেকোনো ফিলিপিনো নাগরিক ভ্যাকসিন তৈরি করলে এই অর্থ দেওয়া হবে। স্থানীয় দৈনিক ম্যানিলা বুলেটিন এই তথ্য জানিয়েছে।

ফিলিপাইনের গত ২৪ ঘণ্টায় একশ ৪০ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এনিয়ে মোট করোনার আক্রান্তের সংখ্যাটি দাঁড়িয়েছে ছয় হাজার পাঁচশ ৯৯ জনে। আর মোট প্রাণহানির সংখ্যাটি দাঁড়িয়েছে চারশ ৩৭ জনে। করোনায় আক্রান্তের সংখ্যাটি দেশটিতে প্রতিদিনই বাড়ছে। তাই দ্রুত ভ্যাকসিন চান রদ্রিগো দুতার্তে। এই কারণেই তিনি পুরস্কারের ঘোষণা করেছেন।

সূত্র: আনাদলু এজেন্সি।

আন্তর্জাতিক