কমেছে মৃত্যু, মন্দা ঠেকাতে কিছু কারখানা খুলে দেবে স্পেন

কমেছে মৃত্যু, মন্দা ঠেকাতে কিছু কারখানা খুলে দেবে স্পেন

করোনা মহামারিতে ইউরোপের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ দেশগুলোর অন্যতম স্পেন। কয়েক সপ্তাহের বেসামাল অবস্থার পর দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর হার কমে আসায় কিছুটা আশান্বিত সরকার। অর্থনৈতিক কর্মকান্ডের আংশিক খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে আজ সোমবার। কারণ শতাব্দীর সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক মন্দা ইতিমধ্যে উুঁকি দিতে শুরু করেছে। ফলে মন্দা ঠেকানোর লক্ষ্যেই তড়িগড়ি ব্যবসা-বাণিজ্য আংশিক খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত স্পেন সরকারের। 

গত ২৪ ঘন্টায় ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র সব দেশই করোনায় মৃত্যু কমে আসার রিপোর্ট দিয়েছে। যা গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সর্বনিম্ন। মৃত্যুর হার কমে আসলেও দেশটির প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ সতর্ক করে বলেন, ‘লকডাউনে দেশ বিজয় থেকে এখনও অনেক দূরে। আমরা সবাই রাস্তায় নামতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। কিন্তু তার চেয়ে আমাদের বড় লক্ষ্য করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে বিজীয় হওয়া এবং এটি যাতে আর ফিরে না আসে তা নিশ্চিত করা।’ 

তিনি বলেন, ‘কিছু কম্পানি দুই সপ্তাহ পর কার্যক্রম শুরু করবে, তবে খুব আবশ্যক নয় এমন কম্পনিকে এ মূহুর্তে কার্যক্রম খোলার সুযোগ দেয়া হবে না। এছাড়া মে মাসে আমরা দেশের কিছু এলাকায় চলাফেরায় নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে দেব।’

জানা যায়, দীর্ঘ অর্থনৈতিক নিশ্চলতার কারণে শতাব্দীর সবচেয়ে বড় মন্দায় পড়তে যাচ্ছে স্পেন। এ অবস্থায় অর্থনীতি নিয়েও শঙ্কায় আছেন দেশটির নীতিনির্ধারকরা। তাই আজ সোমবার থেকে কিছু কারখানায় কর্মকান্ড শুরু হবে এবং নির্মাণ খাতের কর্মীরা কাজে যাবেন। এ ক্ষেত্রে পুলিশ তদারকি করবে এবং ফেস মাস্ক বিতরণ করবে মেট্রো ও ট্টেন স্টেশনগুলোতে। 

সূত্র: ফ্রান্স টুয়েন্টিফোর

আন্তর্জাতিক