এবার ওয়ানডে সিরিজও শ্রীলংকার

এবার ওয়ানডে সিরিজও শ্রীলংকার

এক ম্যাচ হাতে রেখেই টেস্ট সিরিজের মতো ওয়ানডে সিরিজও জিতে নিল শ্রীলংকা। বুধবার 12কলম্বোয় দ্বিতীয় ওয়ানডেতে তারা ডাক-ওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে।
বৃষ্টির কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমিয়ে ৩৮ ওভারে আনা হয়। তাতে আগে ব্যাট করে অলআউট হওয়ার আগে ক্যারিবিয়ানরা তোলে ২১৪ রান। ৩৬.৩ ওভারে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা। তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে থেকে শনিবার পাল্লেকেলেতে তৃতীয় এবং শেষ ওয়ানডে খেলতে নামবে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজের দল।
বুধবার কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ক্যারিবিয়ানদের ছুড়ে দেয়া ২১৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলকে দারুণ শুরু এনে দেন তিলকারতেœ দিলশান ও কুশল পেরেরা। ৪.১ ওভারেই দিলশান-কুশল পেরেরা জুটি তুলে ফেলেন ৪০ রান। পঞ্চম ওভারে সুনিল নারিনের অসাধারণ এক ডেলিভেরিতে বোল্ড হয়ে হতভম্ব হয়ে যান দিলশান (১৭)। দ্বিতীয় উইকেটে অফ ফর্মে থাকা লাহিরু থিরিমান্নেকে নিয়ে ১৫৬ রান তুলে লংকানদের জয়ের দিকে নিয়ে যান কুশল। তবে তার দুর্ভাগ্য মাত্র ১ রানের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত হতে হয়েছে। ৯২ বলে খেলা কুশলের ৯৯ রানের ইনিংসে ছিল ছয়টি চার এবং চারটি ছক্কা। ওয়ানডেতে কুশল হলেন চতুর্থ লংকান ব্যাটসম্যান যিনি ৯৯ রানে আউট হলেন। এর আগে এই দুর্ভাগ্যের শিকার হতে হয়েছে সনাথ জয়াসুরিয়া, তিলকারতেœ দিলশান এবং রুমেশ কালুভিতারানাকে।
কুশলের বিদায়ের পর দিনেশ চন্ডিমালকে (১৫) নিয়ে জয়ের জন্য বাকি কাজটুকু সারেন থিরিমান্নে। তিনি ৯৫ বলে খেলেছেন ৮১ রানের ইনিংস। এর মধ্যে চার মেরেছেন পাঁচটি, ছয় একটি।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে নারিন ২৭ এবং রবি রামপাল ৩৯ রানে পেয়েছেন একটি করে উইকেট। এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নামা উইন্ডিজ ইনিংসের ২৭তম ওভারে বৃষ্টি বাধ সাধে। ফলে ৫০ ওভার থেকে কার্টেল করে ম্যাচের দৈর্ঘ্য ৩৮ ওভারে নামিয়ে আনা হয়। দারুণ ব্যাটিং করেন ওপেনার জনসন চার্লস। তিনি ৭০ বলে সাত চার ও চার ছয়ে খেলেন ৮৩ রানের ইনিংস।
এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ জেসন হোল্ডারের জায়গায় নেতৃত্ব দেওয়া মারলন স্যামুয়েলসের ব্যাট থেকে এসেছে ৬৩ রান ৬১ বলে। তিনি চার মেরেছেন চারটি, ছয় একটি। বাকিদের মধ্যে ড্যারেন ব্রাভো ৩৩ বলে ২১ রান করেন।

Featured খেলাধূলা