টিআইবি ক্ষমা না চাইলে আইনি ব্যবস্থা নেবে ১৪ দল

‘সংসদকে পুতুল নাচের নাট্যশালা’ বলায় ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল অব বাংলাদেশকে (টিআইবি) ক্ষমা চাইতে বলেছে আওয়ামী নেতৃত্বাধীন ১৪ দল। তা না হলে টিআইবির বিরুদ্ধে ‘জনমত গড়ে তোলা’ ও ‘যেভাবে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া যায় সেভাবে’ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের এক বৈঠক শেষে জোটের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘টিআইবি সংসদের প্রতিটি সদস্যকে অপমান করেছে। সংসদ নিয়ে তাঁরা অমার্জনীয়, গর্হিত ভাষা উচ্চারণ করেছে। এটা কোনো রাজনৈতিক দলের পক্ষেও বলা সম্ভব না। তারা বিএনপি-জামায়াতের চেয়েও জঘন্য।’
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টদের উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী বলেন, ‘কারা টিআইবিকে অর্থায়ন করে তা খুঁজে বের করতে অনুরোধ জানাচ্ছি।’
টিআইবির প্রতিবেদনে নতুন নির্বাচন প্রসঙ্গ টেনে মন্ত্রী বলেন, ‘টিআইবি নতুন নির্বাচন চেয়েছে। কে তাদের এ অধিকার দিয়েছে?’
শমসের মবিনের বিএনপি থেকে পদত্যাগের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘কে ইন হল কে আউট হল, এটা তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। বিএনপি থেকে বেরিয়ে আসার মিছিল শুরু হয়ে গেছে।’
আজ সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া সভাপতিত্বে আওয়ামী সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সাধারণ সম্পাদক শরীফ নুরুল আম্বিয়া, তরিকত ফেডারেশনের মহাসচিব আবদুল আওয়াল, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ওয়াজেদুল ইসলাম খান প্রমুখ।
বৈঠক শেষে স্থানীয় নির্বাচনে ১৪ দল একত্রে থাকবে কি না সে প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১৪ দল একটি সুখী পরিবার। বর্তমানে একসঙ্গে আছি, ভবিষ্যতেও থাকব।’

Featured বাংলাদেশ শীর্ষ খবর