ইরানের পরমাণু চুক্তির অনুমোদন দিল খামেনি

ইরানের পরমাণু চুক্তির অনুমোদন দিল খামেনি

৬ বিশ্বশক্তির সাথে ইরানের স্বাক্ষরিত ঐতিহাসিক পরমাণু চুক্তির অনুমোদন দিয়েছে দেশটির 7সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি। আজ বুধবার চুক্তিটির অনুমোদন দেন তিনি। তবে তিনি এ ব্যাপারে সরকারকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে বিশ্বাস করা যায় না।
ইরানের যেকোনও বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেওয়ার একমাত্র ক্ষমতা রাখেন এই নেতা। ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির কাছে এক বার্তায় তিনি এ অনুমোদন দেন। অনুমোদন পত্রটি স্যাটেলাইট টেলিভিশনে পাঠ করে শুনানো হয়। এর আগ পর্যন্ত এ চুক্তি নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তিনি।
চলতি বছরের জুলাইতে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন, রাশিয়া এবং জার্মানির সাথে পরমাণু বিষয়ে একটি চুক্তিতে পৌঁছায় ইরান। চুক্তি অনুসারে ইরান তার পরমাণু কার্যক্রম বন্ধ করবে বিনিময়ে ইরানের উপর বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হবে।
পশ্চিমা দেশগুলো দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ করে আসছিল ইরান বেসামরিক পরমাণু কার্যক্রদের আড়ালে পারমাণবিক বোমা তৈরির কাজ করছে। যদিও তেহরান বারবার তার পারমাণবিক কার্যক্রমকে শান্তিপূর্ণ বলে আখ্যায়িত করে আসছিল।
যুক্তরাষ্ট্রকে সব সময়ই ‘বড় শয়তান’ বলে আখ্যায়িত করে আসছিল ইরান। যদিও রুহানি সমর্থকদের ধারণা ছিল এ চুক্তির ফলে যুক্তরাষ্ট্রে সাথে সখ্য আবারও তৈরি করতে যাচ্ছে ইরান। খামেনির অনুমোদনের পর এ বিতর্কের অবসান ঘটলো।
তবে খামেনি সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, চুক্তিটিতে গঠনগত দুর্বলতা এবং সন্দেহপূর্ণ বিষয়গুলো দেশের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

Featured আন্তর্জাতিক