নারায়ণগঞ্জে নিখোঁজের ছয়দিন পর ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জে নিখোঁজের ছয়দিন পর ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

dead_body_recover_989993512নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় নিখোঁজের ছয়দিন পর সুমন (২৫) নামের এক পরিবহন ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেল ৩টায় কাঁচপুর ইউনিয়নের চেঙ্গাইল এলাকার কানাউলার চকের একটি ডোবা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

সুমনের পরিবারের অভিযোগ, সুমনের শ্বশুরবাড়ির লোকজন পরিকল্পিত ভাবে হত্যার পর সুমনের লাশ ডোবায় ফেলে দেয়।

এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের শাশুরি জহুরা বেগম, শ্যালক মামুন ও মামা শ্বশুর আফজালকে আটক করেছে। লাশ উদ্ধারের পর থেকে তার স্ত্রী কলি আক্তার (১৯) পলাতক রয়েছেন।

সুমন সোনারগাঁও উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের চেঙ্গাইল এলাকার মনির হোসেন মনু মিয়ার ছেলে। তিনি তার বাবার পরিবহন ব্যবসা দেখাশুনা করতেন।

সুমনের বাবা মনির হোসেন মনু জানান, গত বৃহস্পতিবার সুমনের শ্বাশুরি জহুরা মুঠোফোনে কল দিয়ে সুমনকে তাদের বাড়িতে যেতে বলে। এরপর থেকে সুমনকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এ ঘটনায় সোনারগাঁও থানায় একটি জিডি দায়ের করা হয়েছিল। এটা পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। শ্বশুর বাড়ির লোকজনই এ হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে।

সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হক জানান, হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে। লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ শীর্ষ খবর