মার্কিন মন্ত্রিসভায় শ্বেতাঙ্গ পুরুষ আধিপত্য

মার্কিন মন্ত্রিসভায় শ্বেতাঙ্গ পুরুষ আধিপত্য

দ্বিতীয় মেয়াদে মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ পদ ও সরকারের অন্যান্য শীর্ষ পদগুলোতে একঝাঁক শ্বেতাঙ্গ পুরুষকে মনোনীত করায় এবার নিজের দলের পক্ষ থেকেই তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। প্রেসিডেন্ট ওবামা বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী হিসেবে জ্যাক লিউকে মনোনীত করেছেন। এ নিয়ে তিনি চতুর্থবারের মতো শ্বেতাঙ্গ পুরুষ প্রার্থীকে মন্ত্রিসভার সবচেয়ে আকর্ষণীয় পদগুলোর একটিতে মনোনয়ন দিলেন। প্রথমে নারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের জায়গায় জন কেরিকে মনোনীত করেন তিনি। এরপর চুক হেগেলকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী পদে মনোনীত করেন, আর সিআইএ’র প্রধান করেন জন ব্রেনানকে। মনোনয়নপ্রাপ্তরা সবাই শ্বেতাঙ্গ এবং পুরুষ। পক্ষান্তরে ওবামা মন্ত্রিসভার প্রথম হিস্প্যানিক নারীমন্ত্রী শ্রমমন্ত্রী হিলদা সোলিস বুধবার পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়া গত মাসে পরিবেশরক্ষা সংক্রান্ত সংস্থার প্রধান লিসা জ্যাকসন (একজন কৃষ্ণাঙ্গ নারী) জানিয়েছেন, পদ থেকে তাকে সরিয়ে দেয়া হচ্ছে। প্রেসিডেন্ট ওবামার এ মনোনয়নের ব্যাপারে প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন কংগ্রেসের সিনিয়র কৃষ্ণাঙ্গ সদস্য নিউ ইয়র্কের ডেমক্রেট নেতা চার্লস র‌্যাঙ্গেল বলেছেন, এটা অত্যন্ত বিব্রতকর। কংগ্রেসে সব নারী প্রতিনিধি পাঠানো একমাত্র রাজ্য নিউ হ্যাম্পশায়ারের ডেমক্রেট সিনেটর জ্যানে শাহিন বলেছেন, এসব মনোনয়ন অত্যন্ত  হতাশাজনক। তিনি বলেন, আমরা আমেরিকার সত্যিকার প্রতিনিধিত্বশীল সরকার চাই। যাতে আমরা সারা দেশের নানা সমস্যা এবং উদ্বেগের বিষয়গুলো চিহ্নিত করতে পারি। এই সমালোচনায় রিপাবলিকানরাও যোগ দিয়েছেন। সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী মাইক হুকাবে ‘নারীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার’ জন্য ওবামাকে অভিযুক্ত করেছেন।

অন্যান্য আন্তর্জাতিক বাংলাদেশ শীর্ষ খবর