জামদানি নকশীকাঁথা ইলিশসহ ঐতিহ্যবাহী পণ্য সংরক্ষণের দাবি

জামদানি নকশীকাঁথা ইলিশসহ ঐতিহ্যবাহী পণ্য সংরক্ষণের দাবি

জামদানি শাড়ি, নকশীকাঁথা, মধু, ইলিশ এবং ফজলী আমসহ বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী পণ্যগুলো সংরক্ষণের দাবি জানিয়েছে ফেসবুকভিত্তিক কয়েকটি সংগঠন।

তারা বলেন, জামদানিসহ আমাদের ঐতিহ্যবাহী পণ্যগুলোকে আন্তর্জাতিক ট্রেড মার্ক লাগাতে হবে যাতে অন্যকোনো দেশ এগুলো ব্যবসায়ের উদ্দেশে ব্যবহার করতে না পারে।

শুত্রুবার বিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে ফেসবুক গ্রুপ আমজনতার সম্বয়ক জাকির বাংলানিউজকে বলেন, হাজার বছরের ঐতিহ্য জামদানি শাড়ি অনেকটা হারিয়ে যেতে বসেছে। ভারত জামদানিকে তাদের ঐতিহ্য বলে সারাবিশ্বে প্রচার করছে। এমনকি নকশিকাঁথাগুলোকে তাদের পণ্য বলে প্রচার করছে।

ভারতসহ কয়েকটি দেশে আমাদের পন্য নিয়ে যে যড়যন্ত্র শুরু হয়েছে তার বিরুদ্ধে সোচ্ছার হওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

অন্যান্য বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের কৃষি, বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয় এসব বিষয়ে নজর দিচ্ছে না বলেই পার্শ্ববর্তী দেশ আমাদের পণ্যকে তাদের বলে প্রচার করতে সাহস পাচ্ছে।

তারা বলেন, ঢাকার জামদানি শাড়ি, ফরিদপুরের নকশীকাঁথা, চাঁদপুরের ইলিশ, রাজশাহীর ফজলী আম, বগুড়ার দই, সুন্দরবনের মধুসহ আরো যে সকল পণ্য আমাদের ঐতিহ্যের সঙ্গে মিশে আছে সেসকল পণ্যের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সংস্থার(ডব্লিউটিও) জিওগ্রাফিক্যাল ইন্ডিকেটর (জিএল) আ্ইনের অধীনে নিবন্ধন করা দরকার। যাতে অন্য দেশ এসব পণ্যের দাবি করতে না পারে।

মানববন্ধনে মিরপুরে জামদানি পল্লী থেকে কয়েকজন জামদানি ব্যবসায়ী অংশ নেয়। আরো উপস্থিত ছিলেন ব্লগার হাবিবুর রহমান, সাইদ খান, তন্ময়, অনিক, আশিক, শেখ নজরুল প্রমুখ।

অর্থ বাণিজ্য