থ্রিজি উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আবার ক্ষমতায় এলে ফোর-জি: সজীব ওয়াজেদ জয়

থ্রিজি উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আবার ক্ষমতায় এলে ফোর-জি: সজীব ওয়াজেদ জয়

আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় এলে মোবাইল ফোনে ফোর-জি চালু কর‍া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে এবং তার তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

বাংলাদেশে তৃতীয় প্রজন্মের (থার্ড জেনারেশন-থ্রিজি) প্রযুক্তিসেবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। এ সেবার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

থ্রিজি প্রযুক্তিসেবার উদ্বোধন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকাল ১১টায় শুরু হয় এ অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানে ডিজিটাল বাংলাদেশ নিয়ে কথা বলেন সজীব ওয়াজেদ জয়। তিনি বলেন, “আমাদের যেটা পরিকল্পনা ছিল, সে অনুযায়ী আমাদের কী প্রয়োজন সেটা আমরা বিশ্লেষণ করেছি। আমরা চেয়েছি কিভাবে প্রযুক্তির সুবিধা মফস্বল বা গ্রামের মানুষের কাছে পৌঁছানো যায়। আমরা চাইনি ডিজিটাল সার্ভিসে শুধু শহরের মানুষই লাভবান হোক আর গ্রামের মানুষ পিছিয়ে পড়ুক। এ টু আই সেলের মাধ্যমে আমরা তা বাস্তবায়ন করতে পেরেছি।“

তিনি আরও বলেন, “আমরা অনেক দূর এগিয়ে আসতে পেরেছি। সরকারি সার্ভিস, পেমেন্ট ও  মোবাইলে ট্রেনের টিকিট অনলাইনে ক্রয় করতে পারছেন। সাড়ে ৪ হাজার তথ্য কেন্দ্র ১ বছরের মধ্যে তৈরি করে ফেলেছি। থ্রি-জি সার্ভিস চালু করতে পেরেছি। এটি খুবই প্রয়োজন ছিল। আগামীতে ক্ষমতায় এলে ফোর-জি বাস্তবায়ন করবো।

রোববার সকাল ১২ টা  ২০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটকের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের সঙ্গে ভিডিও-কলে কথা বলে এর কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। আর এরই মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে এটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হলো।

থ্রিজি চালু হওয়ায় মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট গতি বেড়ে যাবে বহুগুণ। ফলে এখন যে কাজটি মোবাইল ফোনে করতে বেশি সময় লাগে, এরপর থেকে সেটি বর্তমান সময়ের থেকে কম সময়ে করা যাবে। আর টেলিভিশেও দেখা যাবে মোবাইল ফোনে। আর কথা বলার সময় যিনি মোবাইল ফোন করবেন তার ছবি ও অবস্থান জানা যাবে। জিপিএসের মাধ্যমে পথ নির্দেশনা পাওয়া, উচ্চগতির ইন্টারনেট ব্যবহারসহ ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেওয়াও সম্ভব।

বাংলাদেশ