১০১ দিন পর অনশন ভাঙলেন খাওয়াজা

১০১ দিন পর অনশন ভাঙলেন খাওয়াজা

বাহরাইনের মানবাধিকার কর্মী আবদুল হাদি আল খাওয়াজা অবশেষে তার ১০১ দিনের অনশন ভাঙলেন। তার আইনজীবী মোহাম্মদ আল জিশি টুইটারে জানিয়েছেন, সোমবার সন্ধ্যায় অনশন ভেঙেছেন খাওয়াজা।

শিয়া মুসলিম খাওয়াজা বাহরাইনের ক্ষমতাসীন সুন্নি মতাবলম্বী শাসক পরিবারের কঠোর সমালোচক। তার বিরুদ্ধে সরকার উৎখাত করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনে ক্ষমতাসীনরা। সামরিক আদালত তাকে কারাদণ্ডের রায় দেয়।

আদালতের এ রায়ের বিরুদ্ধে  প্রতিবাদ জানাতে তিনি ২০১১ সালের জুন থেকে অনশন শুরু করেন।

বাহরাইনের আরেক আন্দোলনকারী নাবিল রজবকে জামিনে মুক্তি দেওয়ার পর খাওয়াজের অনশন ভঙের এ সিদ্ধান্তটি এল।

অনশন ভঙের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তার ব্যক্তিগত আইনজীবী জিশি বলেন, ‘বাহরাইনে কারাগারে বন্দিদের মুক্তির বিষয়টিতে দৃষ্টি আকর্ষণের উদ্দেশ্য সফল হয়েছে বলে সাধারণভাবে মনে করা হচ্ছে।’

সরকার উ‍ৎখাতের ষড়যন্ত্র করার অভিয়োগে খাওয়াজা এবং আরো ২০ জনের বিরুদ্ধে রায় দেয় আদালত। তারা আদালতে এ ব্যাপারে আপিল করতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন জিশি।

সরকার উ‍ৎখাত ষড়যন্ত্রের মামলাটি পরিচালিত হয় বাহরাইনের সামরিক ট্রাইব্যুনাল ন্যাশনাল সেফটি কোর্টে। আদালত খাওয়াজাসহ সাত জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারিতে আরব বসন্তের উত্তাল দিনে বাহরাইন সরকার ও ক্ষমতাসীন সুন্নি রাজপরিবার বিশেষ করে সংখ্যাগরিষ্ঠ শিয়াদের তীব্র বিরোধিতার মুখোমুখি হয়।

এ সময় বাহরাইনের নিরাপত্তা বাহিনী বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে দমনমূলক ব্যবস্থা নেয়। তখন মানবাধিকার সংগঠনগুলো এবং খাওয়াজা এর কঠোর সমালোচনা করেন।

আন্তর্জাতিক