পুঁজিবাজারের মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিতে আইনমন্ত্রীকে চিঠি দেবে সংসদীয় কমিটি

পুঁজিবাজারের মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিতে আইনমন্ত্রীকে চিঠি দেবে সংসদীয় কমিটি

পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য বিশেষ আদালত গঠনের সুপারিশ করেছে সরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। এসব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য আইনমন্ত্রীর কাছে চিঠি পাঠাবে কমিটি।

একই সঙ্গে কমিটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের আদলে স্বাধীন সিকিউরিটি এক্সচেঞ্জ কমিশন (এসইসি) গঠনেরও সুপারিশ করেছে।

কমিটি মনে করে স্বাধীন এসইসি গঠন করা হলে পুঁজিবাজারকে আরো গতিশীল করতে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব হবে। পুঁজিবাজার একটি গতিশীল জায়গা। এখানে তড়িৎ সিদ্ধান্ত নেওয়া সবচেয়ে জরুরি।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির ৬২তম বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি এবিএম গোলাম মোস্তফা বৈঠকে সভাপত্বি করেন।

কমিটির সদস্য টি আই এম ফজলে রাব্বি চৌধুরী, খান টিপু সুলতান, মইন উদ্দীন খান বাদল, বজলুল হক হারুন ও আমিনা আহমেদ বৈঠকে অংশ নেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য টিআইএম ফজলে রাব্বি চৌধুরী এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘৯৬ সালে পুঁজিবাজার কারসাজির পরে যেসব মামলা হয়েছিলো সেগুলো এখনো নিষ্পত্তি হয়নি। এসব মামলা দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে রয়েছে। এগুলোর নিষ্পত্তির প্রয়োজন। কমিটির এজন্য বিশেষ আদালত গঠনের সুপারিশ করেছে। এজন্য প্রয়োজনে কমিটি আইনমন্ত্রীর কাছে চিঠি পাঠাবে।’

এদিকে স্বাধীন এসইসি গঠন সম্পর্কে কমিটির সদস্য মইন উদ্দীন খান বাদল বলেন, ‘এসইসি যদি সিদ্ধান্ত গ্রহণ থেকে শুরু করে সবকিছু নিজের মতো করতে পারে তবে এ প্রতিষ্ঠানটি আরো গতিশীল হবে। তবে স্বাধীন হলেও তার জবাবদিহিতা থাকতে হবে।’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান স্বাধীন জানিয়ে কমিটির এ সদস্য বলেন, ‘আমাদের দেশে যখনই পুঁজিবাজারে কোনো সমস্যা হয়, সেটির দায় সরকারের ওপর বর্তায়। অনেক সিদ্ধান্তের জন্য এসইসিকে সরকারের মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হয়।’

কমিটির পুঁজিবাজার সম্পর্কে জনগণকে স্বচ্ছ ধারণা দিতে প্রয়োজনে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়ার সুপারিশ করেছে বলেও জানান তিনি। এ প্রসঙ্গে বাদল বলেন, ‘এসইসির উচিত পত্রিকায় পুরো পৃষ্ঠা জুড়ে বিজ্ঞাপন দেওয়া। যাতে এখানে আসার আগে নতুন বিনিয়োগকারীরা বাজার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা পায়।’

সংসদ বৈঠকে পুঁজিবাজারে ফান্ড বাড়ানো এবং নতুন শেয়ার আনয়নের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। একেবারে না এনে ধীরে ধীরে সরকারি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার মার্কেটে আনয়নের পরামর্শ দেয়া হয়।

এদিকে বৈঠকে পুঁজিবাজার কারসাজির সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করার তদন্ত কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সুপারিশ করেছে কমিটি। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে কারসাজির সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে এসইসি চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অর্থ বাণিজ্য