ন্যানোর কারখানা হতে পারে বাংলাদেশে

SHARE

বিশ্বের সবচেয়ে কমমূল্যের ব্যক্তিগত গাড়ি হিসেবে জনপ্রিয় ভারতীয় মোটরগাড়ি প্রতিষ্ঠান টাটা মোটরসের ন্যানো গাড়ি তৈরির কারখানা বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

ন্যানো গাড়ির সবচেয়ে বড় বিদেশি পরিবেশকদের অন্যতম বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান নিটল-নিলয় গ্রুপ। সম্প্রতি এ প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বাংলাদেশে ন্যানো গাড়ি তৈরির আগ্রহ দেখানো হয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক খবরে এ তথ্য দেওয়া হয়েছে। এতে বলা হয়, নিটল-নিলয় গ্রুপ বাংলাদেশে ন্যানো গাড়ি প্রক্রিয়াজাতকরণ কারখানা স্থাপনের আগ্রহ দেখিয়েছে।

গত শনিবার নিটল-নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুল মাতলুব আহমাদ সাংবাদিকদের জানান, এরইমধ্যে টাটা গ্রুপের কাছে ন্যানো গাড়ির কারখানার জন্য প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। এর মাধ্যমে টাটা গ্রুপ বাংলাদেশের মোটরগাড়ি বাজারের বড় অংশের দখল নিতে পারবেন বলে তার প্রত্যাশা।

তিনি বলেন, এখন তার প্রতিষ্ঠান টাটা গ্রুপের বাণিজ্যিক যানবাহন পক্রিয়াজাত করছে। আমরা এখন বছরে ২০০-৩০০টি ন্যানো গাড়ি বিক্রি করছি। আমি টাটা গ্রুপকে বলেছি, বাংলাদেশে তার বিশাল বাজার তৈরি হতে পারে; যদি ন্যানো ও টাটার আরও কিছু মডেলের গাড়ি এখান থেকে প্রক্রিয়াজাত করা যায়।

তার মতে বাংলাদেশে মোটরগাড়ি বাজারের মাত্র ৭ শতাংশ টাটার দখলে রয়েছে, যা মূলত নিয়ন্ত্রণ করে জাপানি রিকন্ডিশনড গাড়ি।

এরআগে টাটা মোটরসের নির্বাহী পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সতীশ বর্ণকার বলেছিলেন, বিশ্বের সবচেয়ে কমমূল্যের গাড়ি ন্যানোর নির্মাণ প্রতিষ্ঠান ভারতের বাইরে পাঠানোর কোনো চিন্তা তাদের নেই।

তবে সম্প্রতি টাটার ওই অবস্থানের পরিবর্তন হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY