থাইল্যান্ডে গুহায় আটকে পড়া ৬ ক্ষুদে ফুটবলারকে জীবিত উদ্ধার

থাইল্যান্ডে গুহায় আটকে পড়া ৬ ক্ষুদে ফুটবলারকে জীবিত উদ্ধার

প্রতিকূল পরিবেশে লড়াই চালিয়ে ভয়ংকর আর রুদ্ধশ্বাস এক অভিযানে থাইল্যান্ডের গুহায় আটকে পড়ার দুই সপ্তাহ পর ৬ ক্ষুদে ফুটবলারকে জীবিত ও অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। আজ রবিবার অভিজ্ঞ ডুবুরিরা তাদেরকে একে একে বের করে আনেন।

প্রথমে গুহার ভেতরে আটকে থাকা সবচেয়ে দুর্বল কিশোরকে বের করে আনা হয়। আটকে পড়া বাকি ফুটবলার ও তাদের কোচকে সেখান থেকে বের করে আনতে ঠিক কতটা সময় লাগবে তা এখনো জানা যায়নি।

গুহার বাইরেই উদ্ধার করা কিশোরদের জন্য অপেক্ষায় থাকা হেলিকপ্টার ও অ্যাম্বুলেন্সে করে তাদের উদ্ধার হওয়া কিশোরদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এর আগে প্রতিকূল আবহাওয়া পেরিয়ে রোববার চূড়ান্ত অভিযান শুরু করার সিদ্ধান্ত নেয় উদ্ধারকারীরা। অভিযান পরিচালনার প্রধান নারোংসাক অসোট্টানাকর্ন জানান, ১৮ জন ডুবুরি ভেতরে গেছেন তাদের বের করে আনতে। ছেলেরা যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত।

তিনি আরো বলেন, ডাক্তাররা বলছেন, তারা শারীরিক ও মানসিকভাবে পুরোপুরি সুস্থ আছে। তারা দৃঢ়সংকল্প ও স্থিরমনা।

গত ২৩ জুন থেকে এ পর্যন্ত থাইল্যান্ডের চিয়াং রাই শহরের ন্যাশনাল পার্ক লাগোয়া জঙ্গলাকীর্ণ পাহাড়ি এলাকার থাম লুয়াং নাং নন গুহায় আটকা পড়ে আছে ১২ কিশোর ফুটবলার আর তাদের ২৫ বছর বয়সী কোচের দলটি।

টানা ৯ দিনের চেষ্টায় তাদের কাছে পৌঁছানোর পর আরও ৬ দিন পর দলটিকে বের করে আনাতে চূড়ান্ত অভিযান শুরু করে উদ্ধার কর্তৃপক্ষ। এতদিনে উদ্ধার না করতে পারার মূল কারণ ছিলো টানা বৃষ্টিতে গুহার ভেতর সৃষ্ট তীব্র স্রোতের বন্যা আর গুহার গিরিপথের প্রতিকূল গঠন।

Leave a Reply