তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

চলমান মাদকবিরোধী অভিযানের মধ্যে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ ও চুয়াডাঙ্গায় ৩ জন নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিনগত গভীর রাতে বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন টাঙ্গাইল পৌরসভার কান্দাপাড়া এলাকার বাসিন্দা আবদুল মান্নান, (৪৫) ও সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার মাহমুদপুর মহলার মৃত হাতেম আলীর ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (৩২) ও চুয়াডাঙ্গার গোবিন্দপুর স্টেশনপাড়ার মহসিন আলীর ছেলেওল্টু হোসেন (২৬)।

পুলিশের ভাষ্য, নিহতরা এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তাদের নামে একাধিক মামলা রয়েছে।

টাঙ্গাইল : জেলায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে আবদুল মান্নান নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার গভীর রাতে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার চারাবাড়ি এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে।

আবদুল মান্নান টাঙ্গাইল পৌর এলাকার কান্দাপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

টাঙ্গাইল সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুর রহমান জানান, রাতে চারাবাড়ি এলাকায় মাদক এবং মাদকের টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি হয়। এতে আবদুল মান্নান নিহত হন। পরে পুলিশ খবর পেয়ে শনিবার সকালে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, ৬ রাউন্ড গুলি ও ২০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

আব্দুল মান্ননের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল সদর থানায় মাদকের ৬টি মামলা রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।

সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে জাহাঙ্গীর হোসেন (৩২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার দিনগত রাত ৩টার দিকে পৌর এলাকার মাহমুদপুর মাঠে বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে।

জাহাঙ্গীর মাহমুদপুর মহলার মৃত হাতেম আলীর ছেলে।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ জানান, মাদকের লেনদেন হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাত ৩টার দিকে মাহমুপুর মাঠে অভিযান চালানো হয়। অভিযান চলাকালে সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় ১৭ মিনিট বন্দুকযুদ্ধের এক পর্যায়ে মাদক বিক্রেতারা পিছু হটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় জাহাঙ্গীরকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি রিভলবার, ৪ রাউন্ড গুলি, ১০৫ পিস ইয়াবা ও ২৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

জাহাঙ্গীর হোসেনের নামে সদর থানায় ৭টি মাদক মামলা রয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় সন্দেহভাজন এক মাদক বিক্রেতার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের খবর দিয়েছে পুলিশ।

আজ শনিবার সকাল ১০টায় সাতকপাট এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওল্টু হোসেন (২৬) গোবিন্দপুর স্টেশনপাড়ার মহসিন আলীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের মামলা রয়েছে।

আলমডাঙ্গা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাজিমউদ্দিন বলেন, এলাকাবাসীর কাছে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। তার বুকের ডান পাশে ও মাথায় গুলি করা হয়েছে। অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্তরা তাকে হত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে আলমডাঙ্গা থানায় মাদকদ্রব্যসহ বিভিন্ন ধরনের ১০-১২টি মামলা রয়েছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply