চট্টগ্রামে পদদলনে মৃত্যু : তদন্তে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন

চট্টগ্রামে পদদলনে মৃত্যু : তদন্তে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন

ট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ইফতার সামগ্রী নিতে গিয়ে ভিড়ের চাপে মৃত্যু হয় ১০ নারীর। মাত্রাতিরক্ত গরমে ও হুড়োহুড়োতি এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় আরও কমপক্ষে ৪০ জন আহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। চট্টগ্রামের জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) নূরে আলম মিনা দুর্ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাতকানিয়া সার্কেলের এসপি জাসানুজ্জামান মোল্লা বলেন, ‘নিহতদের সবাই নারী। অতিরিক্ত ভিড়ে ও মাত্রাতিরক্ত গরমে তাদের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নে মো. শাহজাহানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ নিউজ লেখা পর্যন্ত নিহতদের ছয়জনের নাম-ঠিকানা পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে লোহাগাড়া উপজেলার কলাউজান ২নং ওয়ার্ডের আবদুস সালামের মেয়ে টুনটুনি বেগম (১৫), সাতকানিয়ার খাগরিয়ার মো. ইসলামের স্ত্রী হাছিনা আক্তার (৩৮) ও বান্দরবানের হাইতলীর ইব্রাহিমের স্ত্রী নূর আয়েশা (৩০)। সাতকানিয়ার রিনা বেগম (২০) রাশিদা আক্তার (৫৪) ও জোৎস্না বেগম (২৫)।

নলুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তাসলিমা আকতার জানান, প্রতিবছর এ ইউনিয়নে মসজিদ মাঠে ধর্ণাঢ্য পরিবারটি জাকাত ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করে থাকে। সোমবার বিতরণের খবর ছড়িয়ে পড়লে আগের দিন রাত থেকে লোকজন ভিড় করতে থাকে। এতে চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলা ছাড়াও কক্সবাজার জেলা থেকে লোকজন সেখানে আসেন। সোমবার সকাল থেকে মাঠে ধারণক্ষমতার চাইতেও বেশি মানুষ জড়ো হলে ভিড়ের চাপে এবং মাত্রারিক্ত গরমে অসুস্থ হয়ে ১০ নারীর মৃত্যু হয়।

মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন ও চট্টগ্রামের জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) নূরে আলম মিনা। পরিদর্শন শেষে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, এ ঘটনায় ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনের পর ঘটনার বিস্তারিত জেনে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়ে তিনি নিহতদের পরিবারকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগীতার আশ্বাস দেন।

চট্টগ্রামের জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) নূরে আলম মিনা জানিয়েছেন, ঘটনার সময় হুড়োহুড়িতে ৮ জন ও পরবর্তীতে আরো ২ জনের মৃত্যু খবর নিশ্চিত হয়েছেন। এদের মধ্যে ছয়জনের নাম পরিচয় পাওয়া গেছে। তাদেরকে পরিবারের কাছে হস্থান্তর করা ও বাকিদের পরিচয় সনাক্ত করতে পুলিশের টিম মাঠে কাজ করছে। এ ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply