ফেসবুকের আড়িপাতার বিষয়টি কল্পিত: জাকারবার্গ

ফেসবুকের আড়িপাতার বিষয়টি কল্পিত: জাকারবার্গ

ইনস্টাগ্রামসহ ফেসবুক অধীনস্থ অ্যাপগুলো স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ফোনালাপে আড়ি পাতছে! এমন উদ্বেগ রয়েছে অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারীর। এটি এমনই এক বিস্তৃত উদ্বেগের বিষয় যে চলতি সপ্তাহে কংগ্রেসের সামনে এ নিয়ে কথা বলেছেন ফেসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ। আলাপচারিতায় ফেসবুকের অ্যাপগুলোর আড়িপাতার এমন ধারণাকে ‘ষড়যন্ত্র তত্ত্ব’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন জাকারবার্গ।

ফেসবুক প্রধান জাকারবার্গ বলেন, ‘আমার একটি বিষয় স্পষ্ট করা উচিৎ, কিন্তু আমরা যতটা বলতে পারি ততটাই, ফেসবুকের আড়িপাতার বিষয়টি কল্পিত। যদিও আমি জানি এমন ধারণা কেন রয়েছে। মানুষ এমন কিছু বিজ্ঞাপন দেখতে পান, মাঝেমধ্যে তারা শুধুই বন্ধুদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন এমন বিষয়ের বিজ্ঞাপন। ফেসবুক কীভাবে জানে আমি কী নিয়ে কথা বলছি, আর একদম ঠিক মুহূর্তেই কেন আমি এসব বিজ্ঞাপন দেখতে পাই?’

এসব প্রশ্নের জবাবও দিয়েছেন জাকারবার্গ। তিনি বলেন, ‘আপনার প্রকৃত আলাপচারিতার উপর নির্ভর করে বিজ্ঞাপনের লক্ষ্য ঠিক করা হয় না; আপনি অনলাইন আর অফলাইনে যা করছেন সবকিছুর উপর এটি নির্ভর করে। নিজস্ব ফেসবুক পিক্সেল–এর মতো ট্র্যাকার আর ইন্টারনেটজুড়ে আপনার দেওয়া ‘লাইক’ বাটন থেকে ওয়েবে আপনার কার্যক্রম সম্পর্কে পাওয়া প্রতিবেদন থেকে প্রতিষ্ঠানটি আপনার ব্রাউজিং অভ্যাস জানে। আপনার নিজেরই ঠিক করা ডেমোগ্রাফিক তথ্য, অ্যাপকে দেওয়া অনুমতির কারণে পাওয়া আপনার অবস্থান, আপনার বন্ধু ও পরিবার, বাস্তবে আপনার কেনাকাটা আর আপনার আপলোড করা ছবি থেকে আপনি কী পছন্দ করেন, এসব তথ্যও জানে এটি। প্রতিষ্ঠানটি আপনার সম্পর্কে অনেক কিছু জানে! শুধু আপনি কী বলেন তা নয়, একদম।’

এদিকে ফেসবুক ব্যবহারকারী নন এমন ব্যক্তির তথ্যও সংগ্রহ করে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যমটিতে– এমন একটি তথ্য সামাজিক মাধ্যমটির ডেটা প্রাইভেসি নিয়ে উদ্বেগ বাড়িয়েছে। কারও অ্যাকাউন্ট থাক বা না থাক তার তথ্য প্রতিষ্ঠানটি সংগ্রহ করে বলে সম্প্রতি স্বীকার করেন জাকারবার্গ। তার এই বক্তব্যের পর ফেসবুকের ডেটা প্রাইভেসি নিয়ে থাকা উদ্বেগ আরও বিস্তৃত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে রয়টার্সের প্রতিবেদনে।

Leave a Reply