বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জঙ্গিবাদ বিরোধী প্রচার-প্রচারণা চালানো হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জঙ্গিবাদ বিরোধী প্রচার-প্রচারণা চালানো হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, জঙ্গিবাদের কুফল সম্পর্কে সামাজিক গণসচেতনতা বাড়াতে গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জঙ্গিবাদ বিরোধী প্রচার-প্রচারণা চালানো হবে।
তিনি সোমবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারস্থ র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মিডিয়া সেন্টারে ‘জঙ্গিবাদ দমনে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জঙ্গিবাদ বিরোধী বিজ্ঞাপনের উদ্বোধন’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে নবনিযুক্ত মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদ থেকে তারুণ্যকে ফিরিয়ে আনতে এবং নতুন করে কেউ যেন জঙ্গিবাদে আকৃষ্ট না হয়, সেজন্য সব মাধ্যমেই জঙ্গিদের বিরুদ্ধে প্রচার-প্রচারণা চালানো হবে।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে জঙ্গিবাদ দমনে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব সদস্যরা মানুষের আস্থা অর্জন করেছে। তারা শুধু জঙ্গিবাদ দমনেই নয়, সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়ে ইতিমধ্যে মানুষের আস্থা ও বিশ^াস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।
তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ দমনে শুধু আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নয়, এর জন্য সমন্বিতভাবে সবাইকে কাজ করতে হবে।
অনুষ্ঠানে পুলিশের নবনিযুক্ত মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, পুলিশের অন্যতম লক্ষ্য হলো দেশকে জঙ্গিবাদ মুক্ত করা। শুধুমাত্র অপারেশন করে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা যাবে না। এর জন্য প্রয়োজন সামাজিক সচেতনতা। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি করতে হবে।
র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেন, শুধু আইন ও শাসন দিয়ে জঙ্গিবাদ দমন করা সম্ভব নয়। এর জন্য ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা প্রয়োজন। পাশাপাশি জনগণের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে হবে।
তিনি বলেন, ব্যাপক প্রচারণার ফলে র‌্যাবের কাছে ৮ জন জঙ্গি আত্মসমর্পণ করেছে। গুলশান হলি আর্টিজানে হামলার পর থেকে এ পর্যন্ত ৩৮৪ জন জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
বেনজীর আহমেদ বলেন, গণমাধ্যমে প্রচারের জন্য জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ৬০ সেকেন্ডের একটি বিজ্ঞাপন তৈরি করা হয়েছে। এছাড়াও ইউটিউবে দুই মিনিটের একটি ভিডিও প্রচার করা হবে।

Leave a Reply